Opu Hasnat

আজ ১২ নভেম্বর মঙ্গলবার ২০১৯,

দীঘিনালায় প্রতিপক্ষের গুলিতে ইউপিডিএফ গণতান্ত্রিক গ্রুপের কর্মী নিহত খাগড়াছড়ি

দীঘিনালায় প্রতিপক্ষের গুলিতে ইউপিডিএফ গণতান্ত্রিক গ্রুপের কর্মী নিহত

খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলার দীঘিনালা উপজেলায় প্রতিপক্ষের গুলিতে এক ইউপিডিএফ-গণতান্ত্রিক এ এক কর্মী নিহত হয়েছে। নিহত কর্মীর নাম সুকেন্দু চাকমা ওরফে সুমন্ত চাকমা (৩৮)। শুক্রবার ভোর সাড়ে চারটার দিকে তার নিজ বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। দীঘিনালা উপজেলার মেরুং ইউনিয়নের মনের মানুষ এলাকার বড়আদাম গ্রামে নিজ বাড়িতে নিহতের ঘটনাটি ঘটে। সে দীঘিনালা উপজেলার মনের মানুষ এলাকার শান্তি বিকাশ চাকমার ছেলে। নব্য গঠিত ইউপিডিএফ-গণতান্ত্রিক এর সক্রিয় সদস্য। 

এ ঘটনায় ইউপিডিএফ গণতান্ত্রিকের প্রতিপক্ষ প্রসিত বিকাশ সমর্থিত ইউপিডিএফ’কে দায়ী করেছে। তবে ঘটনার দায় অস্বীকার করেছে, ইউপিডিএফ প্রসিত গ্রুপ। ঘটনার পর পুলিশ নিহতের লাশ ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে খাগড়াছড়ি জেলা সদর আধুনিক হাসপাতাল মর্গে প্রেরন করে দিয়েছে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সুত্রে জানা যায়, দীঘিনালা উপজেলার মনের মানুষ এলাকায় নিজ বাড়িতে ঘুমিয়েছিলেন। পরে ঘুমন্ত অবস্থায় প্রতিপক্ষের লোকজন গুলি করলে, ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। সুমন্ত চাকমা ইউপিডিএফ গণতান্ত্রিকের একজন সক্রিয় কর্মী এবং ওই এলাকার কালেক্টর।

এ ব্যাপারে ইউপিডিএফ-গণতান্ত্রিকে’র দীঘিনালা উপজেলা সংগঠক প্রনয় বিকাশ চাকমা জানান, নিহত সুমন্ত চাকমা আমাদের সংগঠনের সক্রিয় কর্মী। প্রসিত বিকাশ সমর্থিত ইউপিডিএফ এর সন্ত্রাসীরা তাকে গুলি করে হত্যা করেছে।

ঘটনার অভিযোগ অস্বীকার করে প্রসিত বিকাশ সমর্থিত ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউপিডিএফ) এর খাগড়াছড়ি জেলা সংগঠক মাইকেল চাকমা জানান, এটি তাদের অভ্যন্তরীণ কোন্দল দ্বন্ধে এঘটনা ঘটে থাকতে পারে। আমাদের সংগঠনের কেউ এই ধরনে ঘটনার সাথে জড়িত নয়। ঐ এলাকার আমাদের কোন সাংগঠনিক কার্যক্রম নেই। এই ঘটনার সাথে আমার কোনভাবেই জড়িত নেই।

ইউপিডিএফ-গণতান্ত্রিক’র কেন্দ্রীয় অর্থ সম্পাদক তমিজ চাকমা বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান,‘ শুক্রবার ভোর রাতে এই ঘটনা ঘটেছে। সন্ত্রাসীরা এসময় সুকেন্দু চাকমা বাড়িতে এসে গুলি করে পালিয়ে যায়। এই ঘটনায় প্রসিত খীসার নেতৃত্বাধীন ইউপিডিএফকে দায়ী করেছেন তিনি। 

দীঘিনালা থানার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই মো: মোবারক হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, জেলার দীঘিনালা উপজেলায় গণতান্ত্রিক ইউপিডিএফ কর্মী সুকেন্দু চাকমা ওরফে সুমন্ত নামে এক কর্মীকে গুলি করে হত্যা করেছে সন্ত্রাসীরা। ২রা নভেম্বর শুক্রবার ভোরে দীঘিনালা উপজেলার মনের মানুষ এলাকায় এ ঘটনা ঘটেছে বলে সূত্রে জানা গেছে। জেলার দীঘিনালাা প্রতিপক্ষের গুলিতে নিহত সুকেন্দু চাকমার লাশ উদ্ধার কওে ময়না তদন্তের জন্য খাগড়াছড়ি মর্গে পাঠানো হয়েছে।

দীঘিনালা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) উত্তম চন্দ্র দেব জানান, ঘটনাস্থল অত্যন্ত দুর্গম হওয়ায় নিরাপত্তা বাহিনীসহ পুলিশের একটি দল লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে এসেছে এবং লাশ ময়না তদন্তের জন্য জেলা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। তার স্ত্রীর বরাত দিয়ে ওসি জানান, নিহত ব্যক্তি ইউপিডিএফ (গণতান্ত্রিক) এর সদস্য এবং ইউপিডিএফ’এর প্রসিত গ্রুপকে দায়ী করেছে।