Opu Hasnat

আজ ১৮ নভেম্বর রবিবার ২০১৮,

আনকাট সেন্সর ছাড়পত্র পেলো ‘গোয়েন্দাগিরি’ বিনোদন

আনকাট সেন্সর ছাড়পত্র পেলো ‘গোয়েন্দাগিরি’

শিগগিরই মুক্তি পেতে যাচ্ছে শখের গোয়েন্দাদের গল্প নিয়ে নির্মিত চলচ্চিত্র ‘গোয়েন্দাগিরি’। সম্প্রতি আনকাট সেন্সর ছাড়পত্র পেয়েছে ছবিটি। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন, ছবির নির্মাতা নাসিম সাহনিক।

এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আনকাট ‘সেন্সর পাওয়ায় আমি আনন্দিত। বাংলাদেশে গোয়েন্দা ধারার চলচ্চিত্র নিয়ে বেশ গোছানো পরিকল্পনা রয়েছে আমার। এই চলচ্চিত্রটি সেই পরিকল্পনার প্রথম প্রকাশ। আরো বেশ কিছু চিত্রনাট্য প্রস্তুত আছে। সেগুলো ধাপে ধাপে করব। গোয়েন্দাগিরি আমার প্রথম চলচ্চিত্র। এই চলচ্চিত্রে একদল শখের গোয়েন্দাদের সাহসী অভিযান দেখানো হয়েছে। থ্রিলারধর্মী এই গল্পে সায়েন্স ফিকশনের ছোঁয়াও রয়েছে। তবে আমার দ্বিতীয় চলচ্চিত্র হবে ফোক রোমান্টিক ঘরানার। এটির ঘোষণাও খুব শিগগিরই দেব।

ছবিতে গোয়েন্দা চরিত্রে অভিনয় করেছেন চিত্রনায়িকা শম্পা হাসনাইন। তিনিও ছবিটি বিনা বাধায় সেন্সর ছাড়পত্র পাওয়ায় আনন্দিত। এ ছবিতে অভিনয় প্রসঙ্গে সুপার হিরোইন খ্যাত এই নায়িকা বলেন, ‘গোয়েন্দাগিরি চলচ্চিত্রতে আমি শখের গোয়েন্দা থাকি। আমাকে মেধাবী ছাত্রী হিসেবে উপস্থাপন করা হয়েছে। আমার গণিতের দক্ষতায় সবাই মুগ্ধ হয়। গল্পটি খুবই সুন্দর। আমার বিশ্বাস ছবিটি দর্শকদের ভালো লাগবে।’

ছবির গল্পে দেখা যাবে, একদল টিনএজ ছেলেমেয়ে ছুটিতে বেড়াতে যায়। তারা স্বপ্ন দেখে যে, ভবিষ্যতে বড় গোয়েন্দা হবে। তাদের কারো আইডল শার্লক হোমস, কারো ফেলুদা, কেউবা তিন গোয়েন্দা কিংবা জেমস বন্ড। তাদের অভিযানটা যখন শুরু হয়, তখন মিডিয়াতে একটি পুরনো ভুতুড়ে বাড়ি নিয়ে হৈ চৈ পড়ে যায়। বনের মধ্যে অবস্থিত বাড়িটি নাকি অভিশপ্ত। অভিশপ্ত এ বাড়ির রহস্য উন্মোচনে ঝাঁপিয়ে পড়ে শখের গোয়েন্দারা। এভাবে নানা ঘটনায় এগিয়ে যায় ছবির গল্প।

শম্পা ছাড়া এই ছবিতে আরো অভিনয় করেছেন-কচি খন্দকার, তারেক মাহমুদ, শিখা মৌ, সীমান্ত আহমেদ ও টুটুল চৌধুরীসহ অনেকে। 

২০১২ সাল থেকে ছবিটির পরিকল্পনা শুরু হয়। তবে ২০১৬ সালে শুটিং শুরু করে ২০১৭ সালে ঢাকা, মানিকগঞ্জ, মুন্সীগঞ্জ, গাজীপুর ও নারায়ণগঞ্জের বিভিন্ন জায়গায় এর কাজ শেষ হয়।