Opu Hasnat

আজ ১৭ অক্টোবর বুধবার ২০১৮,

তাহিরপুর রাস্তায় আটকিয়ে এক মহিলাকে পিটিয়ে আহত সুনামগঞ্জ

তাহিরপুর রাস্তায় আটকিয়ে এক মহিলাকে পিটিয়ে আহত

সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলার লাউরেরগড় গ্রামে রাস্তা আটকিয়ে এক মহিলাকে পিটিয়ে আহত করা করা হয়েছে এবং সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধঅন অবস্থায়  হাসপাতালে ও বাধা প্রাদন করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে গতকাল বৃহস্প্রতিবার সকাল ৮টায় তাহিরপুর উপজেলার লাউড়েরগড় গ্রামে। 

তিনি বর্তমানে সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। আহতের নাম বানেছা বেগম (৩৫ সে পুরান লাউরে ঘর গ্রামের নুরুল ইসলামের স্ত্রী। হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার সকাল ৮টায় বাদাঘাট ইউনিয়নের পুরান লাউড়েরগড়  গ্রামের রাস্তা দিয়ে বানেছা বেগম যাওয়ার পথে ফাদঁ পেতে থাকা একই গ্রামের বাসিন্দা মোহাম্মদ আলীর ছেলে হুসেন আলী, রুশেন আলী, হাসেন আলী ও মরম আলী হঠাৎ করে পরিকল্পিত ভাবে পুর্বশত্রুতার জেরে বানেছো বেগমের উপর দেশীয় অন্ত্র নিয়ে হামলায় চালায় এবং তাকে বেদড়ক মারপিট করে। হামলায় বানেছা বেগমের পুরো শরীরে লাঠি দিয়ে প্রচন্ড আঘাত করে  এবং মাথায় রক্তাক্ত জখম করে। হামলার সময় ঐ মহিলার ডান হাত ভেঙ্গে যায়।

 আহত বানেছা বেগমকে মোটটরসাইকেল চালক আলমগীর ও বানেছো বেগমের ভাইপু চিকিৎসার জন্য সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে এনে ভর্তি করলে অঞ্জাত নামা কয়েকজন সন্ত্রাসী হাসপাতালের ভিতরে এসে মহিলা ওয়ার্ড ঢুকে তাদের মারধর করে হুমকি দিয়ে যায় এবং কোন ধরনের চিকিৎসা করালে তাকে মেরে ফেলার হুমকি দেয় বলে জানান অসহায় বানেছা বেগম । মোহাম্মদ আলীর ছেলে হুসেন আলী, রুশেন আলী, হাসেন আলী ও মরম আলী বিরুদ্ধে পূর্বে একটি মামলা করেছিলেন এজন্য তাকে মারধর করা হয়েছে বলেও জানাযায়। এঘটনায় মামলা প্রস্তুতি চলছে।  এব্যাপারে তাহিরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ নন্দন কুমার ধর জানান অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।