Opu Hasnat

আজ ২০ অক্টোবর শনিবার ২০১৮,

জাতীয় ঐক্যের একটি দাবিও মানা হবে না : কাজী ফিরোজ রশীদ ফরিদপুর

জাতীয় ঐক্যের একটি দাবিও মানা হবে না : কাজী ফিরোজ রশীদ

জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য ও সাবেক মন্ত্রী কাজী ফিরোজ রশীদ বলেছেন, দেশে আজ একটি বড় বাহাদুরি হচ্ছে। জাতীয় পার্টির বিরুদ্ধে যাদেরকে নিয়ে জোট করা হয়েছিলো সেই ড. কামাল, বি চৌধুরী, বাম পন্থি, ডানপন্থি সবাইকে নিয়ে আবার একটি বড় জোট হচ্ছে। এই জোটের নেতারা বলেছেন তারা সরকারকে ক্ষমতা থেকে নামাবে। তারপর দেশে গণতন্ত্রের নহর বইয়ে দেবে। কিন্তু তারা যা যা দাবি করেছেন তার একটি দাবিও মানা হবে না। এখন আপনারা ইলেকশনে আসবেন কি আসবেন না এটি সম্পূর্ণই আপনাদের ব্যাপার।

আজ সোমবার দুপুরে ফরিদপুরের অম্বিকা মেমোরিয়াল হলে জেলা জাতীয় পার্টির দ্বিবার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে কাজী ফিরোজ রশীদ একথা বলেন। এসময় তিনি এসএম ইয়াহইয়াকে সভাপতি ও মির্জা জাকির হোসেনকে সাধারণ সম্পাদক করে ফরিদপুর জেলা জাতীয় পার্টির ২ বছর মেয়াদী নতুন কমিটি ঘোষনা করেন। 

কাজী ফিরোজ রশীদ সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে আরো বলেন, গণতন্ত্রতো দেখলাম। আগামী নির্বাচনের আগে সরকার পদত্যাগ করবে না। পার্লামেন্টও ভাঙবে না। আমরা পার্লামেন্টে থেকেই নির্বাচন করবো। আর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও ক্ষমতা থেকে সরবেন না। উনি প্রধানমন্ত্রী থেকে ইলেকশন করেই আবার প্রধানমন্ত্রী হবেন। 

তাহলে কিভাবে ইলেকশন হবে এই প্রশ্ন রেখে কাজী ফিরোজ রশীদ বলেন, যেভাবেই যে অবস্থাতেই নির্বাচন হোক জাতীয় পার্টি নির্বাচনে যাবে। জাতীয় পার্টি একটি নির্বাচনমুখী দল। আমরা নির্বাচনের জন্য কোন দফা দেই নাই। ৩শ’ আসনেই প্রার্থী দেবো আমরা। কোন দলই জাতীয় পার্টিকে ছাড়া রাষ্ট্রিয় ক্ষমতায় যেতে পারবে না। জাতীয় পার্টি এখন বাংলাদেশের রাজনীতির বড় ফ্যাক্টর। জাতীয় পার্টি যাদের সাথে যাবে তারাই ক্ষমতায় যাবে। এজন্য বারবার বলছি, জাতীয় পার্টি কারো ক্ষমতায় যাওয়ার সিড়ি হবে না।

দেশের রাজনীতির বাতাসে এখন দুর্যোগের ঘনঘটা দেখা দিয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, তোফায়েল আহমেদ বলেছেন বিএনপি ক্ষমতায় আসার প্রথম রাতেই আওয়ামী লীগের ১ লাখ লোক মারা যাবে। তিনি সঠিকই বলেছেন। আবার বিএনপি বলছে, দেশে আরেকবার আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসলে তাদের অস্তিত্বই থাকবে না। আমরা বারবার বলছি জাতীয় পার্টি শান্তির রাজনীতি করে। এতো বছর কারাগারে রেখেছেন কারো বিরুদ্ধে আমাদের কোন অভিযোগ নেই। জাতীয় পার্টিকে ক্ষমতায় দেন কোন দলের কাউকে জেলেও যেতে হবে না। মরতেও হবে না।

ফরিদপুর জেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক এসএম ইয়াহইয়ার সভাপতিত্বে এসময় আরো বক্তব্য দেন প্রেসিডিয়াম সদস্য মোঃ সাহিদুর রহমান টেপা, প্রেসিডিয়াম সদস্য ও ঢাকা মহানগর উত্তরের সভাপতি এসএম ফয়সাল চিশতী, কেন্দ্রিয় ভাইস চেয়ারম্যান জহিরুল ইসলাম জহির, যুগ্ন মহাসচিব শেখ আলমগীর হোসেন, রাজবাড়ি জেলা শাখার সভাপতি অ্যাডভোকেট হাবিবুর রহমান, কেন্দ্রিয় কমিটির সাহিত্য সম্পাদক মোঃ আক্তারুজ্জামান, কেন্দ্রিয় সদস্য মিয়া আলমগীর, ফরিদপুর জেলা কমিটির যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক মির্জা জাকির হোসেন, আক্তার হোসেন, গাজী শফিকুর রহমান স্বপন, সাইদুর রহমান মিন্টু, জেলা যুব সংহতির সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান মোস্তাক, সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদ প্রমুখ।

৯ বছর পর ফরিদপুর জেলা জাতীয় পার্টির দ্বিবার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হলো। জেলা সদরসহ অন্যান্য উপজেলা থেকেই নেতাকর্মীরা সমবেত হন এতে। দুপুরে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলনের মাধ্যমে সম্মেলন শুরু হয়।