Opu Hasnat

আজ ১৫ ডিসেম্বর শনিবার ২০১৮,

অবৈধ সন্তান জন্ম দিয়ে বিপাকে প্রবাসীর স্ত্রী কুমিল্লা

অবৈধ সন্তান জন্ম দিয়ে বিপাকে প্রবাসীর স্ত্রী


কুমিল্লার নাঙ্গলকোট উপজেলায় আবুল কাশেম নামে এক যুবক প্রবাসীর স্ত্রীকে বেশ কয়েকবার ধর্ষণ করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

ধর্ষণের ফলে ওই প্রবাসীর স্ত্রী গর্ভবতী হয়ে একটি পুত্র সন্তান প্রসব করেছেন। এ ঘটনায় মঙ্গলবার প্রবাসীর স্ত্রী বাদী হয়ে নাঙ্গলকোট থানায় একটি মামলা করেছেন। পরে অভিযান চালিয়ে এ ঘটনায় অভিযুক্ত আবুল কাশেমকে গ্রেফতার করে জেলহাজতে পাঠিয়েছে পুলিশ। ধর্ষক কাশেম উপজেলার বটতলী ইউনিয়নের কাশিপুর গ্রামের পূর্ব পাড়ার মৃত ইউনুছ মিয়ার ছেলে। নির্যাতিত ওই নারীর (২৬) স্বামীর বাড়ি একই গ্রামে।

মামলার অভিযোগ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, দুই সন্তান নিয়ে স্বামীর বাড়িতে বসবাস করছিলেন ওই নারী। গত বছরের ১০ অক্টোবর গভীর রাতে প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে বাইরে গেলে আবুল কাশেম তার ঘরে ঢুকে পড়ে। এরপর জোরপূর্বক ওই প্রবাসীর স্ত্রীকে ধর্ষণ করে। পরবর্তীতে এ ঘটনার কথা প্রকাশ করে দেবে- এমন হুমকি দিয়ে বেশ কয়েকবার প্রবাসীর স্ত্রীকে ধর্ষণ করে কাশেম। এতে ওই নারী গর্ভবতী হয়ে পড়েন। কয়েক মাস আগে প্রবাসী স্বামী দেশে আসলেও ভয়ে স্বামীকে বিষয়টি জানাননি স্ত্রী। গত ১৩ সেপ্টেম্বর স্বামীর বাড়িতে প্রবাসীর স্ত্রী একটি পুত্রসন্তান প্রবব করেন। এ নিয়ে বিপাকে পড়েন স্ত্রী। এরপর ওই নারী তার স্বামী এবং বাড়ির লোকজনকে বিষয়টি জানান।


মঙ্গলবার সকালে প্রবাসীর স্ত্রী নিজেই বাদী হয়ে আবুল কাশেমকে একমাত্র অভিযুক্ত করে থানায় একটি মামলা করেন। পরে উপজেলার বটতলী এলাকায় অভিযান চালিয়ে আবুল কাশেমকে গ্রেফতার করে পুলিশ। বিষয়টি নিশ্চিত করে নাঙ্গলকোট থানা পুলিশের ওসি মো. নজরুল ইসলাম বলেন, ওই প্রবাসীর স্ত্রী এ ঘটনায় বাদী হয়ে থানায় মামলা করলে আমরা আসামিকে গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠিয়েছি।