Opu Hasnat

আজ ২২ সেপ্টেম্বর শনিবার ২০১৮,

সিআইপি সস্মাননা পেলেন টেকনো মিডিয়া লিমিটিডের পরিচালক ড. যশোদা দেবনাথ অর্থ-বাণিজ্যফরিদপুর

সিআইপি সস্মাননা পেলেন টেকনো মিডিয়া লিমিটিডের পরিচালক ড. যশোদা দেবনাথ

সিআইপি (বাণিজ্যিক গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি) সম্মাননা পেলেন টেকনো মিডিয়া লিমিটিডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ড. যশোদা জীবন দেবনাথ। টেকনো মিডিয়া লিমিটিডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক হিসেবে (২০১৬ সালের জন্য) তিনি এই সম্মাননা পেলেন। ড. যশোদা জীবন দেবনাথ ১৯৭২ সালে ফরিদপুর জেলার সদর উপজেলার চাদঁপুর ইউনিয়নের ধোপাডাঙ্গা গ্রামে এক সম্ভ্রান্ত হিন্দু পরিবারে জন্মগ্রহন করেন। তার মেধা, নিষ্ঠা ও অক্লান্ত পরিশ্রমের ফলে টেকনো মিডিয়া লিমিটিডে একটি সু প্রতিষ্ঠিত কোম্পানী হিসেবে প্রতিষ্ঠিত দেশ ও বিদেশে। 

বৃহস্পতিবার রাজধানীর সোনারগাঁও হোটেলে এক অনুষ্ঠানে শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমুর কাছ থেকে তিনি নিজে এই পুরুস্কার গ্রহন করেন। এর আগেই তিনি ২০১৪ সালে ও ২০১৫ সালে পরপর দুই বার কাজের স্বকৃতি স্বরুপ বাংলাাদেশ সরকার কর্তৃক সিআইপি নিবার্চিত হন।  

ব্যাংকিং খাতকে উন্নয়নের জন্য প্রতিনিয়ত যে প্রতিষ্ঠানটি গবেষনা ও কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছে তার নাম টেকনো মিডিয়িা লিমিটেড। ২০০১ সাল থেকে প্রতিষ্ঠনটি ব্যাংকিং সেবা তৃনমূল পর্যায়ে পৌঁছে দেওয়ার জন্য এটিএম সরবরাহ, স্থাপন, রক্ষণাবেক্ষন, ডেবিট কার্ড-ক্রেডিট কার্ড সরবরাহ, চেকবুক তৈরি, এমআইসিআর চেকবুকের নিরাপত্তা নিশ্চিত করন, বিভিন্ন ব্যাংকিং সফটওয়্যার সরবরাহ ইত্যাদি সেবা নিশ্চিত করার মাধ্যমে জাতীয় অর্থনীতিতে (জিডিপি) উল্লেখযোগ্য অবদান রাখছে। টেকনোমিডিয়া কয়েকবার এনসিআর কর্তৃক বেস্ট পারফর্মেন্স এ্যাওয়ার্ডে ভূষিত হয়। গত ৯ মে ২০১৮ইং এশিয়াওয়ান কর্তৃক ‘‘ ওয়ার্ল্ড গ্রেটেস্ট ব্রান্ড ও লিডার্স এশিয়া এবং জিসিসি ২০১৭-১৮” নির্বাচিত হয়।

অনুষ্ঠানে বিভিন্ন খাতের আরও ৫৫ জন শিল্পোদ্যোক্তাকে সিআইপি কার্ড দেওয়া হয়। কার্ড পাওয়ার পর থেকে এক বছরের জন্য সিআইপিরা ব্যবসা সংক্রান্ত ভ্রমণের সময় প্লেন, রেল, সড়ক ও জলপথে সরকারি যানবাহনে আসন সংরক্ষণে অগ্রাধিকার পেয়ে থাকেন। সহজে ভিসা পাওয়ার জন্য তাদের অনুকূলে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সংশ্লিষ্ট দূতাবাসকে ‘লেটার অব ইন্ট্রোডাকশন’ দেয়। বিমানবন্দরে ভিআইপি লাউঞ্জ-২ ব্যবহারের সুবিধা এবং সচিবালয় প্রবেশের পাসও পান তারা।এছাড়া শিল্পবিষয়ক নীতি-নির্ধারণী কোনো কমিটিতে সিআইপিদের সদস্য হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করতে পারে সরকার। বিদেশে রাষ্ট্রীয় গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে সরকারের নীতি-নির্ধারকদের সঙ্গে বৈঠকের সুযোগও পেয়ে থাকেন সিআইপি সম্মাননা প্রাপ্তরা।