Opu Hasnat

আজ ১৪ নভেম্বর বুধবার ২০১৮,

অ্যাপে ক্যাশ আউট : চার্জ বাড়িয়েছে বিকাশ অর্থ-বাণিজ্য

অ্যাপে ক্যাশ আউট : চার্জ বাড়িয়েছে বিকাশ

অ্যাপ ব্যবহার করে ক্যাশ আউট (মোবাইল ব্যাংকিং থেকে অর্থ উত্তোলন) করার ক্ষেত্রে চার্জ বাড়িয়েছে বিকাশ। অ্যাপ ব্যবহার করে বিকাশ অ্যাকাউন্ট থেকে এখন ক্যাশ আউট করতে গেলে আগের থেকে হাজারে ২ টাকা ৫০ পয়সা বেশি খরচ হবে। চলতি মাসের ৫ তারিখ থেকে বাড়তি এ চার্জ কার্যকর করেছে প্রতিষ্ঠানটি।

এ বছরের ১৫ মে আনুষ্ঠানিকভবে উদ্বোধন করা হয় বিকাশ অ্যাপ। এর আগে ২৫ এপ্রিল গুগল প্লে স্টোরে দেয়া হয় অ্যাপটি। ২৫ এপ্রিল থেকে ১৫ মে আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনের আগেই প্রায় ১৪ লাখ গ্রাহক অ্যাপটি ডাউনলোড করে।


সাধারণভাবে বিকাশ দিয়ে ক্যাশ আউটের ক্ষেত্রে হাজারে ১৮ টাকা ৫০ পয়সা চার্জ নেয়া হলেও অ্যাপ দিয়ে প্রথমে ক্যাশ আউটের ক্ষেত্রে চার্জ নির্ধারণ করা হয় হাজারে ১৫ টাকা। তবে চার মাস যেতে না যেতেই অ্যাপের ক্যাশ আউট চার্জ বাড়িয়ে ১৭ টাকা ৫০ পয়সা নির্ধারণ করেছে বিকাশ

অ্যাপ দিয়ে ক্যাশ আউট কারার ক্ষেত্রে চার্জ বাড়ায় কিছু কিছু গ্রাহকের মধ্যে অসন্তোষ দেখা দিয়েছে। মো. আবু নামের এক বিকাশ অ্যাকাউন্ট ব্যবহারকারী বলেন, বিকাশ যে মোবাইল ব্যাংকিং চালু করেছে তা খুবই ভালো উদ্যোগ। এর ফলে যে কোনো মুহূর্তে প্রয়োজনের সময় টাকা উত্তোলন করা যায়। তবে ক্যাশ আউট চার্জ অনেক বেশি। এটা কমানো উচিত।

তিনি বলেন, প্রথম যখন বিকাশ অ্যাপ চালু হলো তখন ক্যাশ আউটের ক্ষেত্রে হাজারে ১৫ টাকা নেয়া হত। এতে ক্যাশ আউট চার্জ কিছুটা কমে আসে। কিন্তু এখন অ্যাপে ক্যাশ আউট চার্জ হাজারে সাড়ে ১৭ টাকা করা হয়েছে। এটা ঠিক হয়নি। অ্যাপ দিয়ে ক্যাশ আউট করতে গেলে ইন্টারনেট লাগে। আর ইন্টারনেট তো ফ্রি ফ্রি পাওয়া যায় না, এর জন্যও তো টাকা খরচ করতে হয়। তাহলে অ্যাপে বাড়তি সুবিধা কোথায়?

মুরাদ নামের আর এক বিকাশ গ্রাহক বলেন, বিকাশের ক্যাশ আউট চার্জ অনেক বেশি। অ্যাপ চালুর পর ক্যাশ আউটের যে চার্জ নির্ধারণ করা হয়েছিল তা মোটামুটি সাধ্যের মধ্যে ছিল। কিন্তু এখন হঠাৎ করে অ্যাপের চার্জ বাড়ানো হয়েছে। এতে ক্যাশ আউটের ক্ষেত্রে ব্যয় বেড়ে যাওয়ায় অ্যাপ ব্যবহারের আগ্রহ কমে গেছে।

তিনি বলেন, নেট খরচ যোগ করলে দেখা যাবে অ্যাপের ক্যাশ আউট সাধারণের থেকে বেশি পড়ে যাচ্ছে। আবার অ্যাপ ব্যবহারে নানা ধরনের ঝুঁকিও আছে। অ্যাপ চালুর পর পাঁচ মাস না যেতেই এভাবে চার্জ বাড়ানো উচিত হয়নি। এটা এক ধরনের প্রতারণা। আমি মনেকরি বিকাশের লেনদেন চার্জ কমানো উচিত।

অ্যাপ ব্যবহার করে ক্যাশ আউট করার ক্ষেত্রে চার্জ বাড়ানোর বিষয়ে বিকাশের কমিউনিকেশন বিভাগের প্রধান শামসুদ্দিন হায়দার ডালিম জাগো নিউজকে বলন, ‘বিকাশে ক্যাশ আউটের চার্জ হাজারে ১৮ টাকা ৫০ পয়সা বা শতকরা ১ দশমিক ৮৫ শতাংশ। আমরা যখন অ্যাপ চালু করি তখন অ্যাপটিকে জনপ্রিয় করতে প্রমোশনাল অফার হিসাবে হাজারে ১৫ টাকা চার্জ নির্ধারণ করা হয়।’

তিনি বলেন, ‘সে সময় আমরা বিজ্ঞাপনে বলেই দিয়েছিলাম এটা একটি প্রমোশনাল অফার। আমরা মোটামুটি দীর্ঘদিন এ অফারটি রেখেছি। এখন অফারটা শেষ হয়েছে। এখন আমরা হাজারে ১৭ টাকা ৫০ পয়সা চার্জ নির্ধারণ করেছি। যেটা অরিজিনাল চার্জ থেকেও ১ টাকা ৫০ পয়সা কম।’

তিনি আরও বলেন, যারা আমাদের বিকাশের ওয়ালেট ব্যবহার করছেন, তাদের বেশিরভাগই অ্যাপ ব্যবহার করছেন। অ্যাপ ইন্টারনেট বেস। যারা স্মার্টফোন ব্যবহার করছেন, সে রকম বিকাশ ব্যবহারকারীরা প্রায় সবাই অ্যাপ ব্যবহার করছেন। অ্যাপটা অনেক সহজ। এটা দিয়ে দ্রুত কাজ করা যায় এবং সময় কম লাগে।

এদিকে বিকাশ অ্যাপ চালুর পর নিরাপত্তা ত্রুটিসহ নানা অভিযোগ উঠেছে। হ্যাকিংয়ের মাধ্যমে গ্রাহকের বিকাশ অ্যাকাউট থেকে টাকা তুলে নেয়ার ঘটনাও ঘটেছে। এ নিয়ে জাগো নিউজসহ বিভিন্ন গণমাধ্যমে একাধিক সংবাদও প্রকাশিত হয়েছে। ‘বিকাশ অ্যাপ দিয়ে গ্রাহককে ভোগান্তিতে ফেলছে প্রতারকরা’ শিরোনামে গত ৫ জুলাই একটি তথ্যভিত্তিক প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয় জাগো নিউজে।