Opu Hasnat

আজ ১৯ নভেম্বর মঙ্গলবার ২০১৯,

বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে : এলজিআরডি মন্ত্রী পিরোজপুর

বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে : এলজিআরডি মন্ত্রী

স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, এক সময় সরকারের বাজেট ছিল ৭ হাজার কোটি টাকা। আর এখন শুধু পিরোজপুর জেলাতেই একটি মন্ত্রনালয়ের প্রায় ২ হাজার কোটি টাকার উন্নয়ন কাজ চলছে।

তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ যে এগিয়ে যাচ্ছে, এটাই তার বড় প্রমাণ।’

শুক্রবার দুপুরে জেলার ভান্ডারিয়া উপজেলা পরিষদ প্রাঙ্গণে ভান্ডারিয়া উপজেলা পরিষদ সম্প্রসারিত প্রশাসনিক ভবন ও হলরুম ভবনের উদ্বোধন পরবর্তী সুধী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

অনুষ্ঠানে সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় পার্টি- জেপি’র চেয়ারম্যান ও পানি সম্পদ মন্ত্রী আনোয়ার হোসেন মঞ্জু।

খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, পিরোজপুর জেলায় ৬৭ কোটি টাকা ব্যয়ে পানি সরবরাহের ৭ টি প্রকল্প বাস্তবায়িত হচ্ছে। এছাড়া জেলা পরিষদের ৫৪ কোটি টাকার, জেলার ৪ টি পৌরসভায় ৫৫ কোটি টাকার, ৭ উপজেলায় ৪৪ কোটি টাকার এবং ৫২িি ট ইউনিয়ন পরিষদে ৫৩ কোটি টাকার উন্নয়ন কাজ চলমান রয়েছে।

আনোয়ার হোসেন মঞ্জু বলেন, ‘মানুষ ঐক্যবদ্ধ থাকলে এলাকার উন্নয়ন সম্ভব, এটা এলাকার মানুষ প্রমাণ করেছে। এ এলাকার উন্নয়ন কেউ ঠেকাতে পারবে না।’

স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের তত্তাবধানে নবনির্মিত ভান্ডারিয়া উপজেলা পরিষদের চারতলা বিশিষ্ট সম্প্রসারিত প্রশাসনিক ভবন নির্মানে ব্যায় হয়েছে ৫ কোটি ৭৪ লাখ ৭ হাজার টাকা। প্রতি তলায় ৪ হাজার ২ শ’ ৫০ বর্গফুট করে মোট ১৭ হাজার বর্গফুটের এ ভবনে বিভিন্ন আকারের ৩০ টি কক্ষ রয়েছে।

এছাড়া হলরুমটির আয়তন করা হয়েছে ২১ হাজার বর্গফুট। গত অর্থবছর এ ভবনটির নির্মাণ কাজ শুরু হলেও চলতি মাসের ৪ তারিখে শতভাগ কাজ শেষ হয়।

ভান্ডারিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার শাহীন আক্তার সুমির সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন পিরোজপুর জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মহিউদ্দিন মহারাজ, ভান্ডারিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান আতিকুল ইসলাম উজ্জল, ভান্ডারিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ফাইজুল রশিদ খসরু, জেপির উপজেলা সভাপতি মনিরুল হক মনি জমাদ্দার, এলজিইডির ভারপ্রাপ্ত প্রধান প্রকৌশলী খলিলুর রহমান, পিরোজপুরের ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ সালাম কবির প্রমুখ।