Opu Hasnat

আজ ২২ সেপ্টেম্বর শনিবার ২০১৮,

ল্যাটিন আমেরিকায় বাংলাদেশের স্বার্থ রক্ষার এখনই সময় প্রবাস

ল্যাটিন আমেরিকায় বাংলাদেশের স্বার্থ রক্ষার এখনই সময়

মাঈনুল ইসলাম নাসিম : ব্রাজিল, মেক্সিকো, আর্জেন্টিনা, চিলি, পেরু, ভেনিজুয়েলা, প্যারাগুয়ে ও বলিভিয়াসহ পুরো ল্যাটিন আমেরিকা জুড়ে বাংলাদেশি পণ্যের চাহিদা দিনকে দিন বেড়েই চলেছে। নীতি নির্ধারণী পর্যায়ে সুনির্দিষ্ট কর্মপরিকল্পনার পাশাপাশি আন্তরিকতার সাথে বহুমূখী প্রচেষ্টা জোরদার করা হলে এই ল্যাটিন আমেরিকাই হয়ে উঠবে বাংলাদেশ থেকে বৈধ জনশক্তি রপ্তানীর আকর্ষণীয় বাজার। 

বৃহষ্পতিবার (২৩ আগস্ট) ব্রাজিলের গুরুত্বপূর্ণ পর্যটন নগরী রিও দি জানেইরোর অভিজাত হোটেল হিল্টন কোপাকাবানাতে অনুষ্ঠিত বিশেষ সেমিনারে উঠে আসে ল্যাটিন আমেরিকা-বাংলাদেশ বহুপাক্ষিক অর্থনৈতিক এবং বাণিজ্যিক সম্পর্কের বর্তমান ও ভবিষ্যৎ। 

প্যারিস ভিত্তিক ‘বিশ্ব বাংলাদেশ সংস্থা’ ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ অর্গানাইজেশন (ডব্লিউবিও) কর্তৃক আয়োজিত “ল্যাটিন আমেরিকায় বাংলাদেশের সম্ভাবনা” শীর্ষক গুরুত্বপূর্ণ এই সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ব্রাসিলিয়াতে দায়িত্বরত রাষ্ট্রদূত জুলফিকার রহমান। ডব্লিউবিও সভাপতি কাজী এনায়েত উল্লাহর সভাপতিত্বে সেমিনারে বিশেষ আলোচক ছিলেন আর্জেন্টিনা-বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্সের (এবিসিসিআই) সভাপতি আলিম আল রাজী তালুকদার। রাজধানী ব্রাসিলিয়া ও বাণিজ্যিক নগরী সাও পাউলোর কমিউনিটি ও ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দের মধ্যে সেমিনারে যোগ দেন জয়নাল আবেদিন, হারুনুর রশিদ, জামাল আহমদ, মুস্তাফিজুর রহমান তাপাদার, সুরাইয়া আক্তার সুমি, লায়েছ আহমদ মিনু, এ এইচ এম খায়রুল ইসলাম প্রমুখ। 

রাষ্ট্রদূত জুলফিকার রহমান বলেন, “বর্তমানে ল্যাটিন আমেরিকায় শুধুমাত্র ব্রাজিল ও মেক্সিকোতে আমাদের দূতাবাস থাকায় প্রবল সম্ভাবনাময় বিশাল এই অঞ্চলে বাংলাদেশকে আমরা ঠিক সেভাবে মেলে ধরতে পারছি না। যদিও অদূর ভবিষ্যতে আর্জেন্টিনা ও চিলিতে মিশন খোলার পরিকল্পনা বাংলাদেশ সরকারের রয়েছে, তথাপি আমাদের সময় এসেছে আজ পলিসি মেকিং-এর ক্ষেত্রে আরো বেশি যত্নবান হবার”। ল্যাটিন আমেরিকার বিভিন্ন দেশে বাংলাদেশ কমিউনিটি ও বিজনেস চেম্বারকে সংগঠিত করে একটি সম্মিলিত শক্তি হিসেবে যে কোন চ্যালেঞ্জ মোকাবেলার আহবান জানান সেমিনারের আয়োজক ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ অর্গানাইজেশনের (ডব্লিউবিও) সভাপতি কাজী এনায়েত উল্লাহ।