Opu Hasnat

আজ ২২ সেপ্টেম্বর শনিবার ২০১৮,

চট্টগ্রামে জাতীয় শোক দিবসের বর্ণাঢ্য আয়োজন চট্টগ্রাম

চট্টগ্রামে জাতীয় শোক দিবসের বর্ণাঢ্য আয়োজন

 স্বাধীনতার মহান স্থপতি, হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৩তম শাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে গতকাল ১৫ আগস্ট বুধবার চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে বর্ণাঢ্য কর্মসূচির আয়োজন করা হয়। কর্মসূচির মধ্যে ছিল সকল সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিতকরণ ও  সকাল ৯টায় চট্টগ্রাম সার্কিট হাউজ থেকে বর্ণাঢ্য  শোক র‌্যালি বের করা হয়। র‌্যালিটি জেলা শিল্পকলা একাডেমিতে গিয়ে শেষ হয়। র‌্যালিতে অংশ নেন চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার  মো. আবদুল মান্নান, বিভাগীয় পরিচালক (স্থানীয় সরকার) দীপক চক্রবর্তী,   অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (সার্বিক) শংকর রঞ্জন সাহা, অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (উন্নয়ন)  মো. নুরুল আলম নিজামী, পুলিশের চট্টগ্রাম রেঞ্জের  ডিআইজি খন্দকার গোলাম ফারুক বিপিএম, পিপিএম, মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার  মো. মাহাবুবর রহমান পিপিএম,  অতিরিক্ত ডিআইজি এসএম রুকন উদ্দিন, জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ ইলিয়াস হোসেন, অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (প্রশাসন) মাসুদ-উল-হাসান, অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (ট্রাফিক) কুসুম দেওয়ান, পুলিশ সুপার নুরেআলম মিনা বিপিএম, পিপিএম, শিল্প পুলিশের এসপি রিয়াজ উদ্দিন আহমেদ, সিভিল সার্জন ডা. আজিজুর রহমান সিদ্দিকী, জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মো. সাহাব উদ্দিন, মহানগর মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মোজাফফর আহমদ, জহুর আহমদ চৌধুরী, ফাউন্ডেশনের পরিচালক শরফুদ্দিন চৌধুরী রাজু, জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের উপ-পরিচালক (স্থানীয় সরকার) ইয়াছমিন পারভীন তিবরীজি,  সমাজসেবা অধিদপ্তরের পরিচালক ড. নাজনীন কাউসার চৌধুরী, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ হাবিবুর রহমান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক  (এলএ) মো. মমিনুর রশিদ, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মো. দেলোয়ার হোসেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মো. আমিরুল কায়সার, অতিরিক্ত জেলা  ম্যাজিস্ট্রেট (এডিএম) মোহাম্মদ মাশহুদুল কবিরসহ সরকারের বিভিন্নস্তরে কর্মরত পদস্থ কর্মকর্তা,  জেলা শিল্পকলা একাডেমি ও জেলা শিশু একাডেমির প্রশিক্ষক-শিক্ষার্থী  বিভিন্ন সরকারি- বেসরকারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক- শিক্ষার্থী এবং বিভিন্নস্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীগণ। 

সকাল সাড়ে  ৯টায় জেলা শিল্পকলা একাডেমি চত্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন করেন বিভাগীয় কমিশনার, পুলিশের রেঞ্জ ডিআইজি, পুলিশ কমিশনার, জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার, আর.আর.এফ কমাড্যান্ট, ইন্ডাস্ট্রিয়াল পুলিশ, রেলওয়ে পুলিশ, শিল্প পুলিশ, পুলিশ ব্যুরো ইনভেস্টিগেশন, টুরিস্ট পুলিশ,  সমাজসেবা, এলজিইডি, পানি উন্নয়ন বোর্ড, গণপূর্ত দপ্তর, সিভিল সার্জন অফিস, জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, মহানগর মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, আনসার-ভিডিপি, জেলা শিল্পকলা একাডেমি, জেলা শিশু একাডেমি, আমরা মুক্তিযোদ্ধার সন্তান, মুক্তিযোদ্ধার সন্তান সংসদ কমান্ড ও বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীবৃন্দ। এরপর সকাল সাড়ে ১০টায় জেলা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে জাতির পিতার ৪৩তম শাহাদত বার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত হয়। 

জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ ইলিয়াস হোসেনের সভাপতিত্বে ও অনুষ্ঠিত বঙ্গবন্ধুর শাহাদত বার্ষিকীর আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার মো. আবদুল মান্নান। বিশেষ অতিথি ছিলেন পুলিশের চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি  খন্দকার গোলাম ফারুক বিপিএম, পিপিএম, সিএমপি কমিশনার মাহাবুবর রহমান পিপিএম, জেলা পুলিশ সুপার নুরেআলম মিনা পিপিএম, মহানগর মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মোজাফফর আহমদ  ও জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মো. সাহাবউদ্দিন। 
আলোচনা সভা শেষে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আয়োজিত বঙ্গবন্ধু ভিত্তিক চিত্রাংকন, আবৃত্তি ও রচনা প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কারসহ সনদপত্র তুলে দেন প্রধান অতিথি ও অন্যান্য অতিথিবৃন্দ। 

আলোচনা সভায় বিভাগীয় ও জেলা প্রশাসনের পদস্থ কর্মকর্তা, মেট্রোপলিটন পুলিশ,  বিভাগীয় ও জেলা পুলিশের পদস্থ কর্মকর্তা, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-শিক্ষার্থী, জেলা শিল্পকলা ও শিশু একাডেমির প্রশিক্ষক-শিক্ষাথীগণসহ সর্বস্তরের শ্রেণি পেশার প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন। 

আলোচনা সভায় বক্তারা হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবন-ইতিহাসের উপর গুরুত্বারোপ করেন।
শিশু একাডেমি :  স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৩তম শাহাদত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস ২০১৮ উদযাপন উপলক্ষে বাংলাদেশ শিশু একাডেমি চট্টগ্রাম বিভিন্ন  কর্মসূচির আয়োজন করেছে। কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে গতকাল  ১৫ আগস্ট বুধবার সকাল ৮ টায়  কোরআন খতম, মিলাদ মাহফিল,  সকাল ৯টায়  চট্টগ্রাম সার্কিট হাউজ থেকে জেলা শিশু বিষয়ক কর্মকর্তা নারগীস সুলতানার নেতৃত্বে ক্ষুদে শিক্ষার্থী ও প্রশিক্ষকদের নিয়ে  শোক র‌্যালি বের করা হয়। র‌্যালিতে প্রধান প্রধান সড়ক ঘুরে জেলা শিল্পকলা একাডেমিতে গিয়ে শেষ হয়। এরপর সকাল সাড়ে ৯টায় ক্ষুদে শিক্ষার্থীদের নিয়ে জেলা শিল্পকলা একাডেমির  বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে  শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন করেন জেলা শিশু বিষয়ক কর্মকর্তা নারগীস সুলতানা।