Opu Hasnat

আজ ১৬ ডিসেম্বর রবিবার ২০১৮,

পাইকগাছায় কোটি টাকার সরকারি সম্পত্তি দখলের চেষ্টা, প্রতিবাদ সভা খুলনা

পাইকগাছায় কোটি টাকার সরকারি সম্পত্তি দখলের চেষ্টা, প্রতিবাদ সভা

পাইকগাছায় ধনী পরিবারের সদস্যরা ভুমিহীন পরিচয় দিয়ে বন্দোবস্তর নামে বাজারের কোটি টাকার সরকারি সম্পত্তি দখল চেষ্টাসহ কুরবানির পশুর হাট ব্যাহতের অভিযোগ উঠেছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার রাড়ুলী ইউপির বাঁকা বাজারে। এ নিয়ে স্থানীয় ক্ষমতাসীনরা বিরোধে জড়িয়ে পড়েছেন বলে জানা গেছে। 

এদিকে বাজার উন্নয়ন, রাজস্ব আদায় ও পবিত্র হজ্জ পালনের উদ্দেশ্যে সৌদি আরবে অবস্থানরত রাড়ুলী ইউপি চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মজিদ গোলদারকে জড়িয়ে পত্রিকায় ভিত্তিহীন রিপোর্টের প্রেক্ষিতে ব্যবসায়ী জনপ্রতিনিধি সভা করে নানা প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছেন। লিখিত অভিযোগে রাড়ুলীর ভারপ্রাপ্ত ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল হামিদ গাজী ও চেয়ারম্যান পুত্র জি এম সাইফুল ইসলাম জানিয়েছেন, রাড়–লী ইউনিয়নের বাঁকা বাজারে কপোতাক্ষ চর ভরাটি জমিতে প্রতিবছর রাজস্ব দিয়ে পশুর হাট বসে থাকে। এছাড়া বিভিন্ন এলাকার মানুষ গরু-ছাগল, ভেড়া-মহিষ ক্রয় বিক্রয় করেও লাভবান হয়েং থাকে এখান থেকে। এতে বাজারের ব্যাপক উন্নঢয়নও ঘটেছে। এরা অভিযোগ করেছেন স্থানীয় ধনাট্য পরিবারের সদস্য ডিড রাইটার মঞ্জুরুল ইসলাম ও আব্দুল হাকিম তাদের স্ত্রীদের নামে ও কপিল উদ্দীন শেখ তার পুত্র জিয়াউর রহমান ভুমিহীন পরিচয় দিয়ে বিগত ২০১৩ সালে চর ভরাটিয়া কোটি টাকার সম্পত্তি একসনা বন্দোবস্ত গ্রহন করলেও পরবর্তিতে তা নবায়ন হয়নি বলে জানা গেছে। 

এদিকে বাজার উন্নয়নের স্বার্থে চর ভরাটি পশুর হাটে উন্নয়নের জন্য বাজার কমিটি ও ব্যবসায়ীরা যৌথভাবে বালু উত্তোলন করে জায়গাটি ভরাট এর কাজ করছেন। এতে ক্ষুদ্ধ হয়ে কথিত ভুমিহীন পরিচয় দানকারী ব্যবসায়ী ঘের মালিক কপিল শেখ ও মনিরুল গংরা বিভিন্ন জায়গায় ভিত্তিহীন অভিযোগ দিয়ে পশুর হাট বন্ধের চেষ্টা করে বাজার উন্নয়নে বাঁধা হয়ে দাঁড়িয়েছেন। 

এ বিষয়ে বাঁকা বাজার কমিটির সম্পাদক মাজেদ গাজী ও ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান হামিদ গাজী বলেছেন- উন্নয়নের স্বর্থে আমরা রাজস্ব দিয়ে চর ভরাটি জমিতে পশুর হাট বসিয়ে থাকি। যাতে এলাকার মানুষ উপকৃত হয়। কিন্তু কতিপয় লোকের অসহোযোগীতার কারনে উন্নয়নর বিগ্নিত হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন। 

সহকারী কমিশনার (ভুমি ) আব্দুল আওয়াল জানান, বাজারের কোটি টাকার সরকারি সম্পত্তি বন্দোবস্তর নামে যাতে বে-হাত না হয় সে বিষয়ে তিনি পদক্ষেপ নিবেন বলে জানিয়েছেন। এদিকে বাজার উন্নয়ন ব্যাহত করা এবং চেয়ারম্যানকে জড়িয়ে পত্রিকায় ভিত্তিহীন রিপোর্টের ঘটনায় ইতোমধ্যে বাঁকা বাজারে ভারপ্রাপ্ত ইউপি চেয়ারম্যান হামিদ গাজীর সভাপতিত্বে এক সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় বক্তব্য রাখেন ইউপি সদস্য আব্দুর সাত্তার, জাহান আলী, মর্জিনা বেগম, রেজাউল করিম, সরদার আবুল কালাম, মাজেদ গাজী, আরশাদ আলী বিশ্বাস, উত্তম দাশ, রমজান আলী, মুজিবর পাড়, জি এম সাইফুল ইসলামসহ অনেকেই।