Opu Hasnat

আজ ১৯ ডিসেম্বর বুধবার ২০১৮,

ব্যাংকের দাপটে ঊর্ধ্বমুখী শেয়ারবাজার অর্থ-বাণিজ্য

ব্যাংকের দাপটে ঊর্ধ্বমুখী শেয়ারবাজার

গত কয়েক কার্যদিবস ধরে লেনদেন হওয়া ব্যাংক খাতের সিংহভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার দাম কমলেও মঙ্গলবার ছিল সম্পূর্ণ ব্যতিক্রম। প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) লেনদেন হওয়া মাত্র ২টি ব্যাংকের শেয়ার দাম কমেছে। বিপরীতে দাম বেড়েছে ২৬টির।

ব্যাংক খাতের এমন দাপটে অন্য খাতের বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম কমার পরও ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতায় দিনের লেনদেন শেষ হয়েছে। তবে ডিএসই ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) লেনদেনের পরিমাণ কমেছে।


এদিন ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নেয়া ১৩০টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম আগের দিনের তুলনায় বেড়েছে। বিপরীতে দাম কমার তালিকায় স্থান করে নিয়েছে ১৬৮টি। আর ৪১টির দাম অপরিবর্তিত রয়েছে।

বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের দাম কমার পরও ডিএসইর প্রধান মূল্য সূচক ডিএসইএক্স আগের দিনের তুলনায় ৮ পয়েন্ট বেড়ে ৫ হাজার ৩৪৮ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। অপর দুটি মূল্য সূচকের মধ্যে ডিএসই-৩০ আগের দিনের তুলনায় ৪ পয়েন্ট বেড়ে ১ হাজার ৯১৩ পয়েন্টে অবস্থান করছে। তবে ডিএসই শরিয়াহ সূচক ৫ পয়েন্ট কমে ১ হাজার ২৬৮ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে।

এদিকে ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৮৭৩ কোটি ১১ লাখ টাকা। আগের দিন লেনদেন হয় ১ হাজার ৫৪ কোটি ৯৩ লাখ টাকা। সে হিসাবে লেনদেন কমেছে ১৮১ কোটি ৮২ লাখ টাকা।

টাকার অঙ্কে ডিএসইতে সব থেকে বেশি লেনদেন হয়েছে বিবিএস কেবলস’র শেয়ার। কোম্পানিটির ৩৭ কোটি ২২ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। লেনদেনে দ্বিতীয় স্থানে থাকা পেনিনসুলা চিটাগাংয়ের ৩০ কোটি ৫৩ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। ২৬ কোটি টাকার শেয়ার লেনদেনে তৃতীয় স্থানে রয়েছে কেডিএস এক্সেসরিজ।

লেনদেনে এরপর রয়েছে- বসুন্ধরা পেপার, নাহি অ্যালুমিনিয়াম, মুন্নু সিরামিক, স্কয়ার ফার্মাসিটিক্যাল, ড্রাগন সোয়েটার, ইফাদ অটোস এবং আমান ফিড।

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের সার্বিক মূল্য সূচক সিএসসিএক্স ২৮ পয়েন্ট বেড়ে ৯ হাজার ৯৮৯ পয়েন্টে অবস্থান করছে। বাজারটিতে লেনদেন হয়েছে ৩৪ কোটি ১৯ লাখ টাকা। লেনদেন হওয়া ২৬০টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ১০০টির দাম বেড়েছে। বিপরীতে দাম কমেছে ১৪০টির। আর দাম অপরিবর্তিত রয়েছে ২০টির।