Opu Hasnat

আজ ২৫ জুন সোমবার ২০১৮,

ব্রেকিং নিউজ

বঙ্গবন্ধুর ছবি আমি কি মাথায় নিয়ে হাটবো? : রাজাপুর পিআইও ঝালকাঠি

বঙ্গবন্ধুর ছবি আমি কি মাথায় নিয়ে হাটবো? : রাজাপুর পিআইও

ঝালকাঠির রাজাপুরে প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও) নাসরিন সুলতানার অফিসে বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমান ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি না টানিয়ে ফেলে  রেখেছেন। সোমবার দুপুরে প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার (পিআইও) অফিসে গিয়ে দেখা গেছে অফিসের কোথাও বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমান ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি টানানো নেই। বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি ২টি না টানিয়ে একটি আলমিরার উপরে ফেলে রেখেছেন। 

এ বিষয়ে জানতে চাইলে রাজাপুরে প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও) নাসরিন সুলতানা জানান, অফিসে রং করা হয়েছে এজন্য ছবি ২টি নামিয়ে রেখেছি পরে টানানো হবে। বেশকিছু দিন আগেই রংয়ের কাজ শেষ হলেও এখনও কেন ছবি টানানো হয়নি জানতে চাইলে বিষয়ে এড়িয়ে যান এবং উল্টো সাংবাদিকদের প্রশ্ন করেন বঙ্গবন্ধু ছবি কি আমি সব সময় মাথার উপরে নিয়ে হাটবো?। পিআইও’র এমন ধৃষ্টপূর্ণ বক্তব্যে উপজেলা আওয়ামীলীগের  নেতাকর্মীরা ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। 

উপজেলা আওয়ালীগের ত্রাণ ও সমাজ কল্যান বিষয়ক সম্পাদক এবং উপজেলার মঠবাড়ি ইউপি চেয়ারম্যান মোস্তফা কামাল সিকদারসহ একাধিক নেতারা জানান, সরকারি ও বেসরকারি সকল প্রতিষ্ঠানে বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমান ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি যথাযথভাবে টানানোর নির্দেশনা থাকলে রাজাপুরে প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার (পিআইও) সে নির্দেশ উপেক্ষা করেছেন। তিনি ১৫ দিনেরও বেশি সময় ধরে বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রী না টানিয়ে ফেলে রেখেছেন। যা বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীকে অবমাননার শামিল। এ নিয়ে উপজেলা আ’লীগ, জনপ্রতিনিধি ও তার সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের মধ্যে চাপা ক্ষোভ বিরাজ করছে। এ ঘটনায় পিআইওসহ সংশ্লিষ্টদের বিচার দাবি করেছেন। 

ইউএনও আফরোজা বেগম পারুল জানান, পিআইও একটি আলাদা দপ্তর। এ বিষয়টি সম্পর্কে ওই দপ্তরের কর্মকর্তাই বলতে পারবেন। 

উল্লেখ্য, সংবিধানের ৪-এর ক অনুচ্ছেদে উল্লেখ আছে, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতি রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, স্পিকার ও প্রধান বিচারপতির কার্যালয় এবং সকল সরকারি ও আধা-সরকারি অফিস, স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠান, সংবিধিবদ্ধ সরকারি কর্তৃপক্ষের প্রধান ও শাখা কার্যালয়, সরকারি ও বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, বিদেশে অবস্থিত বাংলাদেশের দূতাবাস ও মিশনসমূহে সংরক্ষণ ও প্রদর্শন করতে হবে।

এই বিভাগের অন্যান্য খবর