Opu Hasnat

আজ ২৪ জুন রবিবার ২০১৮,

ব্রেকিং নিউজ

বড়াইগ্রামে তুচ্ছ ঘটনায় হামলা, লুটপাট ও হত্যার চেষ্টা নাটোর

বড়াইগ্রামে তুচ্ছ ঘটনায় হামলা, লুটপাট ও হত্যার চেষ্টা

নাটোরের বড়াইগ্রামে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের সশস্ত্র হামলায় গুরুতর জখম হয়েছে মা ও ছেলে সহ কমপক্ষে ৫ জন। এসময় বাড়িতে ভাংচুর, লুটপাট ও পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের হত্যার চেষ্টাও চালায় তারা। শুক্রবার সন্ধ্যায় ইফতারের পনের মিনিট আগে উপজেলার জোয়াড়ি বৃকাচুটিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। গুরুতর আহত ওই গ্রামের আলী আহম্মেদের স্ত্রী ফাতেমা বেগম (৫৫) ও ছেলে আশরাফুল ইসলাম ওরফে সাইফুল (৩২) কে রক্তাক্ত ও গুরুতর আহত অবস্থায় বড়াইগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে এবং অন্যদের স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দেওয়া হয়। শনিবার সকালে অবস্থার অবনতি ঘটলে মা ও ছেলেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বনপাড়ার একটি প্রাইভেট হাসপাতালে ভর্তি করা হয় এবং দুপুরে এ ব্যাপারে বড়াইগ্রাম থানায় ১২ জনকে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করা হয়।

প্রতিবেশী ও মামলা সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার দুপুরের দিকে আম বাগানের মধ্য দিয়ে প্রতিবেশী হুজুর আলী ঘাস বোঝাই বস্তা নিয়ে যাওয়ার সময় এতে বাঁধা দেয় বাগান মালিক আশরাফুল ইসলাম সাইফুল। এ সময় এ নিয়ে দুজনের মধ্যে ব্যপক বাক-বিতন্ডা হয়। পরবর্তীতে সন্ধ্যায় ইফতারের কিছুক্ষণ আগে মোটরসাইকেল নিয়ে আহমেদপুর বাজারের দিকে যাওয়ার জন্য বাড়ি থেকে বের হয়ে সড়কে উঠলে পূর্ব থেকে ওৎ পেতে থাকা একই গ্রামের আলীমদ্দিন ব্যাপারী (৫০), আব্দুস সালাম (২৬), রাজু ব্যাপারী (২৪) রিপন মিয়া (৩৫), তৌহিদুল ইসলাম (৪৫), আছিরউদ্দিন সেখ (৬০) ও কান্দাইল গ্রােেমর জাকির হোসেন (৩৫)সহ ১৫/১৬ জন আশরাফুল ইসলাম সাইফুলের উপর সশস্ত্র হামলা চালায়। হামলাকারীরা রড ও লাঠি দিয়ে তাকে রক্তাক্ত জখম করে ও তার ব্যবহৃত মোটরসাইকেল ভেঙ্গে গুড়িয়ে দেয়।এ সময় স্থানীয় কথিত সন্ত্রাসী দুলাল প্রামাণিকের ইন্ধনে হামলাকারীদের একাংশ বাড়িতে এসে ভাংচুর চালিয়ে নগদ ৭০ হাজার টাকা, ২টি দামী মোবাইল সেট নিয়ে যায়। এতে বাঁধা দিতে এলে হামলাকারীদের মারপিটে মা ফাতেমা বেগম (৫৫), স্ত্রী স্বপ্ন্া বেগম (২৭) প্রতিবেশী কাশু তালুকদার (৩০), আব্দুল গণি (৩৫) ও খাজা আহমেদ তালুকদার (৫৫) গুরুতর আহত হয়। 

বড়াইগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দিলিপ কুমার দাস ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, আসামীরা সকলে পলাতক। তাদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।