Opu Hasnat

আজ ২২ অক্টোবর সোমবার ২০১৮,

‘পরিবেশ ও বন মন্ত্রণালয়ের নাম’ পরিবর্তন জাতীয়

‘পরিবেশ ও বন মন্ত্রণালয়ের নাম’ পরিবর্তন

পরিবেশ ও বন মন্ত্রণালয়ের নাম বদলে ফেলা হয়েছে। জলবায়ু বিষয়টি যুক্ত করে নতুন নামকরণ করা হয়েছে ‘পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়’। বিশ্ব জলবায়ু পরিস্থিতি ও প্রতিবেশী দেশগুলোর সঙ্গে তাল মিলিয়েই এমন পরিবর্তন আনা হয়েছে।

সোমবার (১৪ মে) প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে সচিবালয়ে মন্ত্রিসভার বৈঠকে নতুন নামের প্রস্তাব অনুমোদন পায়। 

বৈঠকের সিদ্ধান্ত জানাতে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম।

এ বিষয়ে বলেন, ‘নাম পরিবর্তনের এ প্রস্তাব আগেই এসেছিল। আশপাশের দেশগুলোর সঙ্গে মিলিয়ে ‘ক্লাইমেট চেইঞ্জ’ যুক্ত করা হয়েছে।’

বিশ্ব জলবায়ু পরিস্থিতির প্রসঙ্গে টেনে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, ‘ক্লাইমেট চেইঞ্জ শব্দটা থাকলে ক্লাইমেট ফান্ড রিলেটেড যে অ্যাকটিভিটিসটা আসবে, সেগুলোকে আমরা অ্যাড্রেস করতে পারব। সারা বিশ্বে ক্লাইমেট চেইঞ্জটা আলোচনায় চলে এসেছে।’

শফিউল আলম আরও বলেন, ‘আপনারা দেখছেন যে, প্রকৃতিতেও চেইঞ্জ চলে এসেছে, ঝড়, বৃষ্টি, বন্যা, আগাম বন্যা, কত রকমের প্রাকৃতিক চেইঞ্জ আমরা এমনি দেখতে পাচ্ছি। সেটা শুধু বাংলাদেশ না, সারা বিশ্বেই আপনারা দেখতে পাচ্ছেন একটা প্রাকৃতিক চেইঞ্জ অটমেটিকলি চলে আসছে। এজন্য এই বিষয়টা এখন কিন্তু বাংলাদেশের সাবজেক্ট নাই, সারা বিশ্বেই ক্লাইমেট চেইঞ্জটা আলোচিত হচ্ছে।’

নতুন মন্ত্রণালয়ের নাম বাংলায় ‘পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়’ এবং ইংরেজিতে  Ministry of Environment, Forest and Climate Change হবে। রাষ্ট্রপতির স্বাক্ষরে প্রজ্ঞাপণ জারি হলেই নতুন নাম কার্যকর হবে। 

উল্লেখ্য, গত বছর ৬ অগাস্ট জাতীয় পরিবেশ কমিটির চতুর্থ বৈঠকে পরিবেশ ও বন মন্ত্রণালয়ের নাম পরিবর্তন করে ‘পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন’ করার সিদ্ধান্ত হয়।