Opu Hasnat

আজ ২২ জুন শুক্রবার ২০১৮,

কিশোরগঞ্জে পৈতৃক বাড়িতে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ কিশোরগঞ্জ

কিশোরগঞ্জে পৈতৃক বাড়িতে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ

রাষ্ট্রপতি এম আবদুল হামিদ যাতে দেশ ও দেশের জনগণের কল্যাণে যথাযথভাবে দায়িত্ব পালন করতে পারেন, তার জন্য নিজ গ্রামবাসীর দোয়া কামনা করেছেন।

রাষ্ট্রপতি বলেন, তিনি বারংবার আকস্মিক বন্যার শিকার হাওর অঞ্চলসহ সমগ্র দেশের কল্যাণ ও উন্নয়নে কাজ করতে চান।

রাষ্ট্রপতি শুক্রবার বিকেলে জেলার মিঠামইন উপজেলায় তাঁর নিজ গ্রাম কামালপুরে বাদ জুম্মা আয়োজিত এক সমাবেশে এ কথা বলেন।

গত ২৪ এপ্রিল দ্বিতীয় দফায় দেশের রাষ্ট্রপতি হিসাবে শপথ গ্রহণের পর প্রত্যন্ত কিশোরগঞ্জ এলাকার পৈতৃক বাড়িতে এটি তাঁর প্রথম সফর। তিনি হাওর অঞ্চলে সম্প্রতি বজ্রপাতে অস্বাভাবিক মৃত্যুর ঘটনায় দুঃখ প্রকাশ করে মৃতদের বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা করেন।
রাষ্ট্রপতি তাঁর পৈতৃক বাড়ি সংলগ্ন মসজিদে জুম্মার নামাজ আদায় করেন। তিনি এ সময় মুসুল্লীদের সাথে কুশল বিনিময় করেন এবং তিনি যেন দেশের রাষ্ট্রপতি হিসেবে তাঁর ওপর অর্পিত দায়িত্ব যথাযথভাবে পালন করতে পারেন, এ জন্য সকলের দোয়া কামনা করেন।

এম. আবদুল হামিদ নামাজ শেষে তাঁর পিতা মো. তৈয়বউদ্দিন এবং মা তোমিজা খাতুন ও অন্যান্য আত্মীয় স্বজনের কবর জিয়ারত করেন।

রাষ্ট্রপতি পরে মিঠামোইন বাজার এলাকায় মিঠামইন ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ের সদ্য নির্মীত ভবনসহ কয়েকটি উন্নয়ন প্রকল্প পরিদর্শন করেন। তিনি কিছু সময় সেখানে কাটান এবং এ সময় স্থানীয় রাজনীতিবিদ ও ব্যবসায়িদের সঙ্গে কথা বলেন।

রেজওয়ান আহমেদ তৌফিক এমপি, হাই কোর্ট ডিভিশনের বিচারপতি আমীর হোসেন, উর্ধ্বতন বেসামরিক ও সামরিক কর্মকর্তাগণ এবং বঙ্গভবনের সংশ্লিষ্ট সচিবগণ রাষ্ট্রপতির সঙ্গে ছিলেন।

রাষ্ট্রপতি এর আগে দুপুর ১২টায় একটি হেলিকপ্টারযোগে এখানে মিঠামইন হেলিপ্যাড গ্রাউন্ডে এসে পৌঁছলে রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, স্থানীয় সংসদ সদস্য এবং স্থানীয় জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তাগণ তাকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান।