Opu Hasnat

আজ ১১ ডিসেম্বর মঙ্গলবার ২০১৮,

বাংলা নববর্ষে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের বর্ণাঢ্য আয়োজন চট্টগ্রাম

বাংলা নববর্ষে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের বর্ণাঢ্য আয়োজন

চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের উদ্যেগে বাংলা নববর্ষ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ উপলক্ষে পহেলা বৈশাখ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ ১৪ এপ্রিল শনিবার দিনব্যাপী বর্ণ্যাঢ্য কর্মসুচীর আয়োজন করা হয়। কর্মসুচীর মধ্যে ছিল- মঙ্গল শোভাযাত্রা, আলোচনা সভা, পান্থা ভাতের আয়োজন ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। শনিবার সকাল ৯ টায় সার্কিট হাউসে সামনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বেলুন উড়িয়ে বাংলা নববর্ষ ১৪২৫ এর মঙ্গল শোভাযাত্রার উদ্বোধন করেন অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (সার্বিক) শংকর রঞ্জন সাহা। মঙ্গল শোভাযাত্রাটি প্রধান প্রধান সড়ক ঘুরে জেলা শিল্পকলা একাডেমিতে গিয়ে শেষ হয়। 

শোভাযাত্রায় অংশ নেন বিভাগীয় পরিচালক (স্থানীয় সরকার) দীপক চক্রবর্তী, অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (উন্নয়ন) মো: নুরুল আলম নিজামী, অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (রাজস্ব) মো: মোমিনুর রশিদ আমিন, চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ ইলিয়াস হোসেন, সিএমপির অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার মাসুদ উল হাসান, জেলা পুলিশ সুপার নুরেআলম মিনা, সিএমপির উপ-পুলিশ কমিশনার এসএম মোস্তাইন হোসেন, মহানগর মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মোজাফ্ফর আহমদ, জহুর আহমদ চৌধুরী ফাউন্ডেশনের পরিচালক শরফুদ্দিন চৌধুরী রাজু, জেলা প্রশাসনের উপ-পরিচালক (স্থানীয় সরকার) ইয়াছমিন পারভীন তিবরীজি, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ হাবিবুর রহমান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মো: দেলোয়ার হোসেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (এল.এ) মো: মমিনুর রশিদ, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট মাশহুদুল কবির, সিভিল সার্জন ডা: মোহাম্মদ আজিজুর রহমান সিদ্দিকী, জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটগণ, পুলিশ প্রশাসন, র‌্যাব, সরকারের বিভিন্ন স্তরের কর্মকর্তা- কর্মচারী, জেলা শিল্পকলা ও শিশু একাডেমির কর্মকর্তা- প্রশিক্ষক ও প্রশিক্ষনার্থীবৃন্দ, বিভিন্ন স্কুল - কলেজের শিক্ষক-শিক্ষার্থী, সাংবাদিক ও সুশীল সমাজের প্রতিনিধিগণ। 

উপমহাদেশের প্রখ্যাত ঢোল বাদক প্রয়াত বিনয়বাঁশী শিল্পীগোষ্ঠী ও পুলিশের বাদকদলের বাদ্য বাজনার তালে ও সুরে হাতি ও পালকির প্রতিকৃতিসহ গ্রাম- বাংলার চিরায়ত  সংস্কৃতিতে আঁকা হরেক রকমের ব্যানার, ফেস্টুন ও প্লে কার্ড হাতে নিয়ে হাজার হাজার নারী-পুরুষ শোভাযাত্রাকে মুখরিত করে তোলে। লাল-সাদা পাঞ্জাবী, মাথায় পেঁচানো গামছা আর নারীদের পরনে লাল পাড় আর সাদা জমিনের সুতির শাড়ী, শাড়ির সাথে মিলিয়ে নারীরা মাথার খোঁপায় গুঁজেছে ফুলের মালা। 

সকাল সাড়ে ১০টায় জেলা শিল্পকলা একাডেমির মুক্ত মঞ্চে বাংলা নববর্ষ ১৪২৫ উপলক্ষে আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্টানের আয়াজন করেন জেলা প্রশাসন। জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ ইলিয়াস হোসেনের সভাপতিত্বে ও কবি ফারুক তাহেরের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার( সার্বিক) শংকর রঞ্জন সাহা। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জেলা পুলিশ সুপার নুরেআলম মিনা বিপিএম, পিপিএম। 

সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (সার্বিক) শংকর রঞ্জন সাহা বলেন, পহেলা বৈশাখ বাঙালি জাতির প্রাণের উৎসব। আর বিশ্বে বাঙালি সংস্কৃতিকে নতুন করে পরিচয় করে দিয়েছে মঙ্গল শোভাযাত্রা। এটা আমাদের জন্য গর্বের। এ উৎসবের মধ্যে দিয়ে আমরা নতুনভাবে উজ্জীবিত হবো। পাশাপাশি গ্রাম-বাংলার চিরায়ত ঐতিহ্য এ প্রজন্মের সন্তানদের কাছে তুলে ধরে মাদক, জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসসহ সব ধরনের অপরাধ কর্মকান্ড রুখে দিয়ে দেশের উন্নয়নের অগ্রযাত্রায় সবাইকে অংশ নিতে হবে। 

আলোচনা সভাশেষে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এতে জেলা শিল্পকলা ও শিশু একাডেমির শিক্ষাথীরা দলীয় গান ও নৃত্য পরিবেশন করেন। এছাড়া টিভি- বেতার শিল্পী শ্রেয়সী রায়, আলাউদ্দিন তাহের, মোস্তফা কামাল, সুবর্ণা রহমান, মানস পাল, জেলা প্রশাসনের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ হাবিবুর রহমান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মো: দেলোয়ার হোসেন ও অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মো: মাশহুদুল কবির অনুষ্ঠানে একক সংগীত পরিবেশন করেন। অনুষ্ঠান চলাকালে বাংলা নববর্ষ পহেলা বৈশাখ উপলক্ষে শিল্পকলা একাডেমিতে পান্থা ভাতের আয়োজন করেন জেলা প্রশাসন।