Opu Hasnat

আজ ১৬ অক্টোবর মঙ্গলবার ২০১৮,

চিন্ময় মহান্তী'র কবিতা ‘ধরনে কালবৈশাখী’ শিল্প ও সাহিত্য

চিন্ময় মহান্তী'র কবিতা ‘ধরনে কালবৈশাখী’

আজ বিকেলে হঠাৎ দেখি আকাশ ও মেঘের মেল 
মেঘটা হঠাৎ রেগে গেল মেল করল ফেল ! 
হঠাৎ দেখি মেখের বুকে বজ্র অসির খেল 
বৃষ্টিরানীর অঝোর নয়ন - কান্না বাজায় বেল। 

জল থৈ থৈ পথে ঘাটে- খেয়ার উপর ছই 
পথের বুকে সাঁতার কাটে জলের মাছ কই । 
ঝড়ের চোটে বেল পড়েছে গাছের তলে ঐ 
চৈত্র মাসের ঝড়কে আমি কি নামেতে কই ! 

কালচৈতী বলতে গেলে লাগে ভীষন ভয় 
নতুন নাম সৃষ্টি করা  আমার কম্ম নয় ।
কালবৈশাখী বলি তবে বৈশাখ যদি হয় 
উদ্ভট সব চিন্তা কেন মাথার মধ্যে রয় ! 

ধরনটাতো একই ছিল কালবৈশাখীরই মত
মাস বদলে কি আসে যায় ধরনইতো যত । 
হাজারেতে যত হয় সহস্রতেও তত
নামের চিন্তা ছেড়ে বোই তার ধরনের ক্ষত  । 

বাগদী বুড়ির খড়ের চালা উড়ে গেল কোথায় ! 
বাবুই পাখির বাসাগুলি উড়েছে বুঝি যেথায় । 
আমার সখের লিচু গাছটির মগডালটি কোথায় ! 
রামুর সখের লিচুর ডালও গেছে বুঝি হোথায় । 

গায়ের ঘাম মরল বটে ঠান্ডা হাওয়া বইল
তবুও তার ক্ষতর স্মৃতি মনের কোনে রইল । 
স্বস্তি দিল স্বস্তি নিল -দুই মুখ দুই কইল 
বাগদী বুড়ির মাটির দেওয়াল আধভাঙা রইল ।