Opu Hasnat

আজ ২২ জুলাই রবিবার ২০১৮,

মাদারীপুরে চালু হল স্বল্পমূল্যে ক্যাম্পস এর ডায়ালাইসিস সেবা স্বাস্থ্যসেবামাদারীপুর

মাদারীপুরে চালু হল স্বল্পমূল্যে ক্যাম্পস এর ডায়ালাইসিস সেবা

অলাভজনক স্বাস্থ্য সেবামূলক প্রতিষ্ঠান ‘‘কিডনি এওয়ারনেস মনিটরিং এন্ড প্রিভেনশন সোসাইটি (ক্যাম্পস)’’ এর উদ্যোগে মাদারীপুর জেলা ও তার পার্শ্ববর্তী অঞ্চলের বসবাসরত প্রায় ৩০ লক্ষ লোকের মধ্যে চিকিৎসা বঞ্চিত তথা স্বল্প আয়ের কিডনি বিকল রোগীদের জন্য,  মাদারীপুরের প্রথম ও একমাত্র ডায়ালাইসিস সেন্টার চালু করা হয়েছে। 

দেশের ক্রমবর্ধমান কিডনি রোগীর তুলনায় এর চিকিৎসার সুযোগ, ডাক্তারের সংখ্যা এবং ডায়ালাইসিস সেবা কেন্দ্রের সংখ্যা অতি নগণ্য। তদুপরি বিদ্যমান চিকিৎসার সুযোগ সমূহের সিংহভাগই নগর কেন্দ্রিক, তাই মফসল শহর কিংবা দেশের প্রত্যন্ত এলাকার কিডনি রোগীদের চিকিৎসা ক্ষেত্রে বিরাজ করছে সিমাহীন দূরাবস্থা। 

এমনি প্রেক্ষাপটে ’ক্যাম্পস’ কিডনি রোগ প্রতিরোধ সচেতনতা বৃদ্ধি এবং সুলভে কিডনি চিকিৎসার কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে।

কিডনি চিকিৎসা দেশের প্রত্যন্ত এলাকার দৌড়গোড়ায় পৌঁছে দিতে ক্যাম্পস তার ডায়ালাইসিস এবং চিকিৎসা কার্যক্রম দেশের বিভিন্ন প্রান্তে প্রসারিত করছে। ইতিমধ্যে ক্যাম্পস টাঙ্গাইল, চাঁদপুর সহ বিভিন্ন এলাকায় ডায়ালাইসিস সেন্টার প্রতিষ্ঠা করে কিডনি রোগীর চিকিৎসা প্রাপ্তির সুযোগ তৈরী করছে। চলমান প্রক্রিয়ার অংশ হিসেবে ক্যাম্পস ঐতিহ্যবাহী জেলা শহর মাদারীপুরে একটি ডায়ালাইসিস কেন্দ্র  প্রতিষ্ঠা করেছে। 

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় নৌপরিবহন মন্ত্রী, বরেণ্য শ্রমিক নেতা, মাদারীপুরের কৃতি সন্তান জনাব শাজাহান খান, এম.পি শুক্রবার আনুষ্ঠিনিক ভাবে ‘‘ক্যাম্পস কিডনি এন্ড ডায়ালাইসিস সেন্টার-মাদারীপুর’’ এর উদ্বোধন করেন। 

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানটি শুক্রবার সকাল ১০ টায় ক্যাম্পস কিডনি এন্ড ডায়ালাইসিস সেন্টার-মাদারীপুর, ১৫৯ পানিছত্র, শরিয়তপুর সড়ক, মাদারিপুর এ অনুষ্ঠিত হয়। উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে ক্যাম্পস এর আয়োজনে মাদারীপুর শিল্পকলা একাডেমীতে, “কিডনি রোগ প্রতিরোধে করণীয়” শীর্ষক একটি সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়।

ক্যাম্পস এর প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতি এবং ল্যাব এইড স্পেশালাইজড হাসপাতালের কিডনি বিভাগের প্রধান, অধ্যাপক ডাঃ এম এ সামাদ এ সেমিনারে সভাপতিত্ব করেন এবং মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন। 

এ সেমিনারে বক্তৃতা কালে প্রধান অতিথি মাননীয় নৌপরিবহন মন্ত্রী, জনাব শাজাহান খান, এম.পি বলেন, ক্যাম্পস কর্তৃক ডায়ালাইসিস সেন্টার স্থাপন একটি মহান উদ্যোগ, কারণ মাদারিপুরের কিডনি রোগীদের ইতিমধ্যে ডায়ালাইসিসের জন্য ঢাকা, ফরিদপুর অথবা বরিশালে যেতে হত। মন্ত্রী বলেন, মাদারিপুরে ডায়ালাইসিস সেন্টার হওয়ায় এখন রোগীদের সময়, অর্থ ও শ্রম সাশ্রয় হবে, ভোগান্তি কম হবে। তদুপরি ক্যাম্পস ডায়ালাইসিস সেবা দেয় স্বল্প মুল্যে যা গরিব রোগীদের জন্য খুবই উপকারে আসবে। তিনি এ মহতি উদ্যোগের জন্য ক্যাম্পস এর প্রতিষ্ঠাতা অধ্যাপক ডাঃ এম এ সামাদকে ধন্যবাদ দিয়ে মাদারিপুরের মুক্তিযোদ্ধা কিডনি রোগীদের ক্ষেত্রে বিশেষ মুল্য ছাড়ের ব্যবস্থা রাখার অনুরোধ জানান। 

পুলিশ সুপার জনাব সারোয়ার হোসেন, উপজেলা চেয়ারম্যান জনাব পাভেলুর রহমান শফিক খান, পৌরসভার মেয়র জনাব খালিদ হোসেন ইয়াদ বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। এ ছাড়াও সেমিনারে স্থানীয় চিকিৎসক, সাংবাদিক, শিল্পী, শিক্ষাবিদ, ক্রীড়াবিদসহ বরেণ্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

মূল প্রবন্ধে অধ্যাপক ডাঃ এম এ সামাদ বলেন, পৃথিবী ব্যাপি কিডনি রোগের প্রবৃদ্ধি অত্যন্ত ব্যাপক।  বাংলাদেশে প্রায় ২ কোটি লোক কোন না কোন কিডনি রোগে আক্রান্ত। কিডনি বিকলের চিকিৎসা অত্যন্ত ব্যায় বহুল বিধায় এদেশের শতকরা ১০ জন রোগী এ চিকিৎসা চালিয়ে যেতে পারে না। অর্থাভাবে চিকিৎসাহীন থেকে অকালে প্রাণ হারান সিংহভাগ রোগী। পক্ষান্তরে, একটু সচেতন হলে ৫০ থেকে ৬০ ভাগ ক্ষেত্রে কিডনি বিকল প্রতিরোধ করা সম্ভব। এজন্য প্রয়োজন প্রাথমিক অবস্থায় কিডনি রোগের উপস্থিতি ও এর কারণ শনাক্ত করে তার চিকিৎসা করা। 

তিনি আরো বলেন, কিডনি রোগের অত্যাধিক চিকিৎসা ব্যায়, ডাক্তারের স্বল্পতা, ডায়ালাইসিস সেন্টারের স্বল্পতাসহ যে সংকট বিদ্যমান রয়েছে তার প্রেক্ষাপটে কিডনি রোগ প্রতিরধই এ মরণ ব্যাধি থেকে পরিত্রানের একমাত্র পথ বলে বিবেচনা করা হয়। তাই ক্যাম্পস গণসচেতনতা বৃদ্ধি করে এ রোগ প্রতিরোধ এবং স্বল্পমূল্যে চিকিৎসা প্রদান সহ চিকিৎসা সুবিধা দেশের বিভিন্ন প্রান্তে ছড়িয়ে দেয়ার লক্ষ নিয়ে কাজ করে যাচ্ছে। যার অংশ হিসেবেই টাঙ্গাইল, চাঁদপুর এর পরে এবার মাদারীপুরেও ক্যাম্পস এর ডায়ালাইসিস সেন্টার চালু হল।