Opu Hasnat

আজ ১৫ আগস্ট বুধবার ২০১৮,

কুমিল্লায় হিজরার মেয়েকে গণধর্ষণ কুমিল্লা

কুমিল্লায় হিজরার মেয়েকে গণধর্ষণ

কুমিল্লায় এক হিজরার মেয়েকে (১৭) গণ ধর্ষনের অভিযোগ ওঠেছে। গত রবিবার সন্ধ্যা আনুমানিক ৭টার সময় ক্যান্টনম্যান্ট ইংরেজ কবরস্থানের পিছনে ফকির মুড়ায় এ ঘটনাটি ঘটে। মো. রবিন (২২) ও রাসেল ওরফে কানা রাসেল (৩০) তাদের সঙ্গীয় অজ্ঞাত আরো ২/৩জন মিলে এ ঘটনাটি ঘটায়। রবিন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার গুনারা গ্রামের জাহের আলীর ছেলে এবং কানা রাসেল বুড়িচংয়ের ঘোষনগরের বাসিন্দা।

ধর্ষিতার মা জানায়, আমি আমার মা এবং মেয়েকে নিয়ে কুমিল্লা ময়নামতি ইউনিয়নের পশ্চিম পাশ্বে রামপাল গ্রামে জাকিরের বাসায় ভাড়া থাকি। ধীর্ঘদিন যাবত রবিন আমার মেয়েকে কু-প্রস্তাব দিত। আমার মেয়ে তার প্রস্তাবে রাজি না হওয়া এবং আমাকে বিষয়টি জানাইলে আমি রবিনের অভিভাবককে এ বিষয়টি জানাই। এতে সে আরো বেশি ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে। 

গত রবিবার সন্ধ্যায় আমার মেয়ে খরচ আনার জন্য বাসা থেকে বাহির হইলে রবিন, কানা রাসেল ও তাদের সঙ্গে থাকা আরো কয়েকজন মিলে জোরপূর্বক আমার মেয়েকে সিএনজিতে উঠিয়ে ফকিরমুড়ায় নিয়ে পালাক্রমে গণধর্ষণ করে। সাথে থাকা আমার ভাইকেও লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে জখম করে। ঘটনা শুনে আমি দৌড়ে সেখানে গেলে আমাকেও পিটিয়ে জখম করা হয়। আমার চিৎকারে আশেপাশের লোকজনের সহযোগীতায় প্রায়নগ্ন অবস্থায় আমার মেয়েকে উদ্ধার করি এবং কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজে হসপিটালে ভর্তি করি।

ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন কুমিল্লা কোতয়ালী মডেল থানার ওসি আবু সালাম মিয়া এবং কুমিল্লা বুড়িচং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা।

এ ব্যপারে কুমিল্লা কোতয়ালী মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।