Opu Hasnat

আজ ১৯ আগস্ট রবিবার ২০১৮,

মুন্সীগঞ্জে একটি সেতুর জন্য অর্ধ লক্ষ মানুষের দুর্ভোগ চরমে! মুন্সিগঞ্জ

মুন্সীগঞ্জে একটি সেতুর জন্য অর্ধ লক্ষ মানুষের দুর্ভোগ চরমে!

মুন্সীগঞ্জ পৌরসভার ৭ নম্বর ওয়ার্ড। গ্রামে একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও তিনটি মসজিদ আছে। ধলেশ্বরী শাখা নদীটির নাম রজতরেখা কালিদাস নদী। এ নদী পার হতে হয় প্রতিদিন দুই পারের ৫০ হাজারের বেশি লোকজনের। মুন্সীগঞ্জ পৌরসভার চর কিশোরগঞ্জে কালিদাস নদীতে আজ পর্যন্ত সেতু নির্মাণ হয়নি। গ্রামের স্কুল-কলেজ পরুয়া ছাত্র-ছাত্রীদের ও পেশাজিবি দিনমজুর লোকজনকে নদী পার হতে হয় তাই নৌকায় করে । 
 
মুন্সীগঞ্জ শহর বা কোথাও যেতে হলে গ্রামের লোকজনকে নৌকা পার হয় যাতায়াত করতে হয়। এতে গ্রামের ছেলেমেয়েদের স্কুল-কলেজে যাতায়াতে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হয়। ইতিমধ্যে নৌকা ডুবে ঘটে গেছে একাধিক দুর্ঘটনা। সবচেয়ে দুর্ভোগে পড়তে হয় অন্ত:সত্ত্বা নারী ও রোগীদের। 
 
স্বাধীনতার ৪৫ বছর পেরিয়ে গেলেও মুন্সীগঞ্জ পৌরসভার চর কিশোরগঞ্জ (মোল্লার চর) গ্রামের মানুষের সেতু নির্মাণের একমাত্র দাবি বাস্তবায়ন হয়নি। মুন্সীগঞ্জ পৌরসভার ৭ নং ওয়ার্ডের কালীদাস নদীর ওপারের গ্রামটির নাম মোল্লার চর। কিন্তু তাঁদের যাতায়াতের একমাত্র পথটি এখনো নৌকা।
 
স্বাধীনতার পর থেকেই এই এলাকার মানুষদের তাঁদের প্রানের দাবি ছিল, ধলেশ্বরীর শাখা নদী কালিদাস নদি নদীতে প্রায় ৪০০ মিটার দৈর্ঘ্যরে একটি সেতু নির্মাণের। 
 
এ জন্য বিভিন্ন সময় বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের প্রার্থীরা নির্বাচনের সময় ভোট চাইতে এসে জয়ী হলে সেতু বানানোর প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। কিন্তু নির্বাচনে জেতার পর তাঁদের আর দেখা মেলেনি। 
 
নেতারা শুধু প্রতিশ্রুতিই দিয়েছেন, সেই প্রতিশ্রুতির সেতু আজও সেতু নির্মান আজও হয়নি
 
সরেজমিনে চর কিশোরগঞ্জের বাসিন্দারা জানান, মুন্সীগঞ্জ-৩ আসনের বিএনপির সাবেক সংসদ সদস্য সাবেক এলজিআরডি উপমন্ত্রী আবদুল হাই বারবার প্রতিশ্রুতি দিলেও তা বাস্তবায়ন করেননি। নির্বাচনের পর তার আর বাস্তবায়ন দেখা পাওয়া যায় নাই। 
 
এমনকি বর্তমান সরকারের আওয়ামীলীগের এ আসনের সংসদ সদস্য এড. মৃনাল কান্তি দাস ও মুন্সীগঞ্জ পৌরসভার বিএনপির সাবেক মেয়র ও বর্তমান আওয়ামী লীগের মেয়র ফয়সাল বিপ্লব নির্বাচনের আগে এই সেতু নির্মাণ করে দেওয়ার কথা বলেছেন। 
 
কিন্তু তা শুধু প্রতিশ্রুতিতেই সীমাবদ্ধ রয়েছে। আলোর কোন সম্ভাবনাই দেখা যাচ্ছে না।
 
তবে বর্তমান মুন্সীগঞ্জ পৌরসভার মেয়র ফয়সাল বিপ্লব জানান, এ সেতু নির্মান কাজের দায়ীত্ব নিয়েছিলেন বর্তমান মুন্সীগঞ্জ ৩ আসনের সংসদ সদস্য এমপি এড. মৃনাল কান্তি দাস।
 
সে এখন সম্পুর্ন ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে। তাই পৌর-মেয়র হিসেবে চেস্টা চলিয়ে যাচ্ছি পৌরসভার ৭ নং ওয়ার্ডের এই সেতুটি নির্মান কাজ কিভাবে সম্পন্য করা যায়। 
 
সেতু নির্মান প্রসঙ্গে মুন্সীগঞ্জ ৩ আসনের সংসদ সদস্য এমপি এড. মৃনাল কান্তি দাসকে 
মুঠো-ফোনে জানতে চাইলে তিনি জানান, সেতুটি নির্মানের প্রকল্পের প্রয়োজনিয় কাগজ পত্রাদি সংশ্লিষ্ট মন্ত্রনালয়ে পাঠানো হয়েছে। সেতু নির্মান কাজ প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।
 
স্বাধীনতার ৪৫ বছর পেরিয়ে গেলেও মুন্সীগঞ্জ পৌরসভার চর কিশোরগঞ্জ (মোল্লার চর) গ্রামের মানুষের সেতু নির্মাণের একমাত্র দাবি বাস্তবায়ন এখনো দেখছেন এই এলাকার বাসিন্দারা। যাদের যাতায়াতের একমাত্র পথ নৌকা। তারা সরকারে কাছে দাবি করেন যেন দ্রুত মুন্সীগঞ্জ পৌরসভার ৭ নং ওয়ার্ডের কালীদাস নদীতে একটি ব্রীজ নির্মান করে দেয়া হয়।