Opu Hasnat

আজ ২১ অক্টোবর রবিবার ২০১৮,

চুয়াডাঙ্গায় কৃষিকাজে পিছিয়ে নেই নারীরা, পুরুষদের সাথে কাজ করছে তারা কৃষি সংবাদচুয়াডাঙ্গা

চুয়াডাঙ্গায় কৃষিকাজে পিছিয়ে নেই নারীরা, পুরুষদের সাথে কাজ করছে তারা

চুয়াডাঙ্গার নারীরা ও পিছিয়ে নেই কৃষি কাজে পুরুষদের সাথে পাল্লাদিয়ে কৃষি কাজ করছেন তারা। এমনই একজন সংগ্রামী নারী জেলার দামুড়হুদা উপজেলার জয়রামপুর ঠাকুরপাড়া গ্রামের নাসিমা খাতুন। নিজের তেমন জমি জায়গা না থাকলেও পরের জমি বর্গা নিয়ে স্বামীর সাথে কৃষিকাজ করে ব্যাপক সফলতা পেয়েছেন এই নারী।

জেলার দামুড়হুদা উপজেলার জয়রামপুর ঠাকুরপাড়া গ্রামের জুলফিক্কার আলি ভুট্টু স্ত্রী ২ কন্যা সন্তানের জননী নাসিমা বেগম জানান,তার নিজের কোন জমি জায়গানা থাকলেও অভাবের সংসারে তিনি ৫/৬বছর আগে থেকে অন্যের জমি বর্গা নিয়ে স্বামীর সাথে কৃষিকাজে সহায়তা করাসহ নিজেই মাঠে ফসলের পরিচর্যাসহ বিভিন্ন ধরনের কাজকর্ম করে ১২বিঘা জমিতে চাষাবাদ করে। 
 
বড় মেয়ে লাখি কে(২৫) বিয়ে দিয়েছি ছোট মেয়ে লিপি কে(১৬) পড়াশুনা করাচ্ছি সে এবার এস এসসি পরিক্ষা দিচ্ছে। এরই মধ্যে ৫বিঘা জমি কিনেছি।  এবার সে ৩বিঘা জমিতে ধান, ২বিঘা জমিতে মসুর, ১০কাঠা জমিতে পিয়াজ, দেড় বিঘা জমিতে টমেটোসহ বিভিন্ন ধরনের ১২বিঘা ফসলের আবাদ করেছি ফসল ভালো হয়েছে। প্রাকৃতিক কোন দুর্যোগ না হলে ভালো লাভোবান হবে বলে আশা করছেন।

তিনি আরো জানান, দামুড়হুদা উপজেলা কৃষি সম্প্রসার অফিসের উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা জয়রামপুর ব্লকের সাইফুল ইসলাম নিয়মিত তার ফসল দেখা শোনাসহ নানা পরামর্শ দিয়ে সহায়তা করেন। কৃষি অফিসের মাধ্যামে কয়েকবার মসুর, ধান, সব্জী আবাদের উপর প্রশিক্ষন নিয়েছেন। 
            
দামুড়হুদা উপজেলা কৃষি অফিসার সুফি মোহাম্মদ রফিকুজ্জামান জানান,বিভিন্ন ধরনের মাঠ দিবস করায় সে নাসিমা উদ্বুদ্ধ হয়ে কৃষি কাজের দিকে ঝুকে পড়েছে। আমরা সকল সময় তার সহযোগিতা করে থাকি ও নিয়মিত চাষের উপর পরামর্শ দিয়ে থাকি। এছাড়াও সুবিধা মত প্রদর্শনী প্রল্ট দিয়ে সহায়তা করায় চাষে লাভ ভালো হওয়ায় সে এখন পুরা চাষের দিকে ঝুকে পড়েছে। তার দেখা দেখি অনেক নারীই এই চাষ কাজের দিকে ঝুকছে।