Opu Hasnat

আজ ১৫ আগস্ট বুধবার ২০১৮,

কারিনার জিরো ফিগারের রহস্য বিনোদন

কারিনার জিরো ফিগারের রহস্য

বলিউডে চির সবুজ নায়িকা কারিনা কাপুর। দীর্ঘদিন ধরে জিরো ফিগার ধরে রেখেছেন। বলিউডে জিরো ফিগারের ট্রেন্ড এনেছিলেন তিনি। সন্তান জন্মের কয়েক মাসের মধ্যেই কাজে ফিরেছেন। ফিগার সচেতন এই অভিনেত্রী হারানো জৌলুস ফিরিয়ে আনতে এখন জিমে দৌঁড়াচ্ছেন নিয়মিত।

কারিনার ফিটনেস বরাবরই ঈর্ষণীয়। ঈর্ষণীয় তার ফিগারও। কিন্তু তার রহস্য কী? হ্যাঁ, জিম তো রয়েইছে। জিমের ছবিও সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেন করিনা। কিন্তু তা ছাড়াও কড়া ডায়েটে থাকেন তিনি। কী সেই রুটিন? সম্প্রতি তা শেয়ার করেছেন সেলেব নিউট্রিশনিস্ট রুজুতা দিওয়েকার।

রুজুতার মতে, নিজের কথা শুনুন। নিজেই নিজের বস হয়ে উঠুন। অন্য কারও পরামর্শ নয়। ডায়েট বা ফিটনেস রুটিন ঠিক করে নিন নিজেই।

অনেকেই মনে করেন, চিনি ফ্যাট বাড়ায়। কিন্তু রুজুতার মতে, সঠিক পরিমাণে চিনি শরীরকে ডিটক্স করে। ফলে ডায়েটে চিনি রাখুন। চকলেট, পেস্ট্রি খেয়েও নাকি নিজের চেহারা ধরে রেখেছেন কারিনা।

ঘি-কে গুড ফ্যাটের তালিকায় ফেলেছেন রুজুতা। বিশেষত পোস্ট প্রেগন্যান্সি পিরিয়ডে ঘি খুবই উপকারি। স্কিনকে টোন করতে, ডিটক্স করতে তৈমুর হওয়ার পর তার পরামর্শ মতো ঘি খেয়েছিলেন কারিনাও। সঙ্গে নিয়মিত যোগ সাধনাও করেছিলেন নায়িকা।

রুজুতার মতে, বাঙালিরা এমনিতেই প্রচুর নারিকেল খান। সে কারণে তাদের ত্বক সুন্দর। তবে ডাবের পানি বেশি উপকারী। অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল, অ্যান্টি ভাইরাল হিসেবে কাজ করে। কারিনা খাদ্য তালিকায় নাকি নারিকেলের লাড্ডু, বরফিও রাখেন।

রুজুতা মনে করেন, হাঁটা কোনও এক্সসারসাইজ নয়, বরং হাঁটা একটা অ্যাক্টিভিটি। যোগ ব্যায়াম, দৌঁড়নো, ওয়েট ট্রেনিং, গ্রুপ কার্ডিওর মাধ্যমে নিজেকে ফিট রাখুন। করিনাও সেই রুটিন ফলো করেন।  

করিনার যে সিক্রেট শেয়ার করেছেন রুজুতা, তা আপনিও বাড়িতে ট্রাই করতে পারেন। কারিনার মতো ফিগার পেতে একবার চেষ্টা করবেন নাকি?সিদ্ধান্তটা আপনার।