Opu Hasnat

আজ ২৪ জুন রবিবার ২০১৮,

ব্রেকিং নিউজ

ফেনীতে খালেদা জিয়ার গাড়িবহরে হামলা, গাড়ীসহ টিভি ক্যামেরা ভাংচুর ফেনী

ফেনীতে খালেদা জিয়ার গাড়িবহরে হামলা, গাড়ীসহ টিভি ক্যামেরা ভাংচুর


রোহিঙ্গা শরনার্থী শিবির পরিদর্শনে যাওয়ার পথে ফেনীতে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার গাড়িবহরে হামলার ঘটনা ঘটেছে। শনিবার বিকেল সাড়ে চারটার দিকে এ হামলার ঘটনা ঘটে।

এসময় সফরসঙ্গী দুই সাংবাদিক আহত হয়েছেন। ভাঙচুর করা হয়েছে বাংলা ট্রিবিউনের সাংবাদিককে বহনকারী একটি গাড়িসহ বৈশাখী টিভি ও ডিবিসি টিভির মোট তিনটি গাড়ি। এছাড়াও জেলার লালপুলে বিএনপি নেত্রীর গাড়িবহরে থাকা নেতা-কর্মীদের জন্য খাবারের ব্যবস্থা করা একটি হোটেলেও ছাত্রলীগ ও যুবলীগের কর্মীরা হামলা চালিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

খালেদা জিয়ার গাড়িবহর ফেনীর ফতেপুর রেলক্রসিং অতিক্রম করার পরপরই অতর্কিতে হামলা চালানো হয়। এ সময় বিএনপির দলীয় পোষ্টার ও স্টিকার লাগাবো বেশ কিছু গাড়ির কাচ ভেঙ্গে ফেলা হয়।

প্রত্যক্ষদর্শী ব্যক্তিরা বলেন, আওয়ামী লীগের স্থানীয় মেয়র হাজী আলাউদ্দিনের মালিকানাধীন স্টার লাইন পেট্রল পাম্পের কাছ থেকেই গাড়িবহরে হামলা করা শুরু হয়। দুর্বৃত্তরা ‘জয় বাংলা’ স্লোগান দিয়ে হামলা চালায় বলে অভিযোগ করেছেন প্রত্যক্ষদর্শী ব্যক্তিরা। তাদের কারও কারও হাতে আগ্নেয়াস্ত্রও দেখা গেছে।

খালেদা জিয়ার গাড়িবহরের সঙ্গে থাকা সাংবাদিকদের গাড়িতেও হামলা চালানো হয়। এ সময় প্রথম আলো, ডিবিসি, একাত্তর, বৈশাখী, চ্যানেল আইসহ বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের গাড়ি ভাঙচুর করা হয়।

আহত সাংবাদিক গোলাম মোরশেদ জানান, ফেনীর শহরে ঢোকার আগে মহীপালের ফতেহপুর নামক স্থানে দুষ্কৃতকারীরা ঢিল ছুড়ে তাদের গাড়ির কাচ ভেঙে ফেলে। ওই কাচ লেগে তার হাত কেটে গিয়েছে। এসময় তার সঙ্গে থাকা ৭১ টিভির বিশেষ প্রতিনিধি শফিক আহমেদও আহত হন।

এদিকে, জেলার লালপুলে বিএনপি নেত্রীর গাড়িবহরের সঙ্গে থাকা নেতাকর্মীদের জন্য আয়োজন করা খাবার ছাত্রলীগ ও যুবলীগের কর্মীরা হামলা চালিয়ে নষ্ট করেছে বলে দাবি করেছেন বিএনপি চেয়ারপারসনের মিডিয়া উইংয়ের কর্মকর্তা শায়রুল কবীর খান।

তিনি বলেন, লালপুল এলাকায় আমাদের গাড়িবহরে থাকা নেতা-কর্মী ও সাংবাদিকদের জন্য একটি রেস্টুরেন্টে খাবারের আয়োজন করেছিল স্থানীয় বিএনপি। সেখানে ছাত্রলীগ ও যুবলীগের কর্মীরা হামলা চালিয়ে খাবারের আয়োজন নষ্ট করেছে। কোনও গাড়িকে সেখানে দাঁড়াতেও দেয়নি।

তবে ঘটনাস্থল সেভেন স্টার হোটেলের মালিক জাফর আহমদ পাটোয়ারী দাবি করেছেন, তার হোটেলে কোনও হামলার ঘটনা ঘটেনি।

এ ব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে ফেনী সদর থানার ওসি রাশেদ খান চৌধুরী জানান, বিএনপি নেত্রীর গাড়িবহরে হামলার কোনও তথ্য তাদের জানা নেই।

তবে খালেদা জিয়ার গাড়িতে হামলার কোনও ঘটনা ঘটেনি। তিনি বিশেষ নিরাপত্তায় বিকাল ৫ টা ৫ মিনিটে ফেনী সার্কিট হাউসে পৌঁছান। সেখানে দলের নির্বাচিত ১৫ জন নেতার সঙ্গে বিশেষ বৈঠক শেষে খাবার খেয়ে বিশ্রাম নেন বিএনপি চেয়ারপারসন। পরে তিনি গাড়িবহরসহ কক্সবাজারের উদ্দেশে ফেনী ত্যাগ করেন।