Opu Hasnat

আজ ২৩ জুন শনিবার ২০১৮,

নাসিরপুরে ‘অপারেশন হিটব্যাক’ সমাপ্ত : ৭/৮ জঙ্গি নিহত মৌলভীবাজার

নাসিরপুরে ‘অপারেশন হিটব্যাক’ সমাপ্ত : ৭/৮ জঙ্গি নিহত

মৌলভিবাজারের নাসিরপুরের বাগানবাড়ির জঙ্গি আস্তানায় পরিচালিত অভিযান সমাপ্ত হয়েছে। পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের প্রধান মনিরুল ইসলাম প্রেস ব্রিফিংয়ের মাধ্যমে এই অভিযানের সমাপ্তি ঘোষনা করেন।

বৃহস্পতিবার (মার্চ ৩০) বিকেল ৫টায় ঘটনাস্থলের কাছেই মৌলভীবাজার সদর উপজেলার ১নং খলিলপুর ইউনিয়ন কমপ্লেক্স ভবনে এই ব্রিফিং অনুষ্ঠিত হয়। ব্রিফিংয়ে আরও উপস্থিত ছিলেন পুলিশের সিলেট রেঞ্জের ডিআইজি (‌উপ মহাপরিদর্শক) কামরুল আহসান ও অন্যান্য সিনিয়র পুলিশ কর্মকর্তারা।

মনিরুল বলেন, মৌলভীবাজারের নাসিরপুরের জঙ্গি আস্তানায় আত্মঘাতী বিস্ফোরণে ৭/৮ জঙ্গির মৃত্যু হয়েছে বলে ধারনা করা হচ্ছে। ভিতরের প্রতিটি ডেডবডি বোমার আঘাতে ছিন্নভিন্ন হয়ে যাওয়ায় সঠিকভাবে লাশের সংখ্যা ধারনা করা যাচ্ছে না বলেও তিনি জানান।

এসময় তিনি জানান, জঙ্গিরা সবাই এক পরিবারের সদস্য কি না বলা যাবে না। তবে তারা আত্মঘাতী বিস্ফোরণেই নিহত হয়েছেন। এদের মধ্যে নারী দেহেরও অংশ রয়েছে। ভেতরের দেহগুলো ছিন্নভিন্ন অবস্থায় রয়েছে। কোথাও তাদের হাত পড়ে আছে, কোথাও পা পড়ে আছে। এজন্য তাদেরকে এই মুহূর্তে আলাদাভাবে শনাক্ত করা মুশকিল। এসব দেখে আমাদের মনে হয়েছে ৭-৮ জন জঙ্গি এ ঘ্টনায় নিহত হয়েছে।

রাতে যখন অভিযান স্থগিত রাখা হয়, তখন পালাবার কোনো পথ নেই জেনেই জঙ্গিরা আত্মঘাতী হয়েছে বলে মনে করছি কেননা লাশ থেকে গন্ধ বের হচ্ছে বলে জানান তিনি।

মনিরুল আরও জানান, আতিয়ামহলে অভিযানের সময় গত শনিবার সংঘটিত জোড়া বিস্ফোরণের সূত্র ধরেই কাউন্টার টেরোরিজম এর গোয়েন্দারা এই আস্তানার সন্ধান পায়। পরে জেলা পুলিশের সহায়তায় বাড়ি দুটি ঘিরে ফেলা হয়। ওই বিস্ফোরণে দুই পুলিশ কর্মকর্তাসহ ছয়জন নিহত হওয়ার পাশাপাশি আহত হন ৪৪ জন।

আশকোনায় আত্মঘাতী বিস্ফোরণে নিহত যুবকের কাছে থাকা বিস্ফোরক, সীতাকুণ্ড ও আতিয়া মহলের বিস্ফোরকের সঙ্গে নাসিরপুরের বিস্ফোরকের মিল রয়েছে বলেও উল্লেখ করেন মনিরুল।