Opu Hasnat

আজ ২৪ জুন রবিবার ২০১৮,

ব্রেকিং নিউজ

কুড়িগ্রামে সমাহিত হলেন সব্যসাচী লেখক শামসুল হক শিল্প ও সাহিত্যকুড়িগ্রাম

কুড়িগ্রামে সমাহিত হলেন সব্যসাচী লেখক শামসুল হক

চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন সব্যসাচী লেখক সৈয়দ শামসুল হক। বুধবার (২৮ সেপ্টেম্বর) বিকেল সাড়ে ৪টায় তৃতীয় জানাজা শেষে ৫টার দিকে কুড়িগ্রাম সরকারি কলেজ চত্বরে তার দাফন সম্পন্ন হয়। জানাজায় পরিবারের সদস্য, আত্মীয়স্বজন ছাড়াও কুড়িগ্রামের সর্বস্তরের হাজারো মানুষ অংশ নেন।

বিকেল ৪টার দিকে কবির মরদেহ বহনকারী বিমানবাহিনীর হেলিকপ্টারটি কুড়িগ্রাম কলেজ মাঠে নামে। ঢাকা থেকে কবির মরদেহ বহনকারী হেলিকপ্টারে ছিলেন সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর, আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবীর নানকসহ পরিবারের সদস্যরা। কবির মরদেহ পৌছার পর তাকে শেষ শ্রদ্ধা জানানোর জন্য কুড়িগ্রামের সর্বস্তরের মানুষ সমবেত হন। কবির প্রতি শ্রদ্ধা জানানোর পর জানাজা অনুষ্ঠিত হয়।

এর আগে সকালে চ্যানেল আই প্রাঙ্গণে প্রথম জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। সেখান থেকে শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য কবির মরদেহ বাংলা একাডেমি ও কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে নিয়ে আসা হয়। শহীদ মিনারে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ শ্রদ্ধা জানান। এরপর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষ থেকে কবির প্রতি শ্রদ্ধা জানানো হয়। রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা জানানোর পর সর্বসাধারণের শ্রদ্ধা জানানোর পর শহীদ মিনার প্রাঙ্গণ উন্মুক্ত করা হয়। শহীদ মিনারে শ্রদ্ধা নিবেদনের পর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়।

এরআগে মঙ্গলবার বিকেলে রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে শেষনিশ্বাস ত্যাগ করেন সৈয়দ শামসুল হক। তিনি ফুসফুসের ক্যানসারে ভুগছিলেন।

সৈয়দ হকের বয়স হয়েছিল ৮১ বছর। তিনি স্ত্রী আনোয়ারা সৈয়দ হক এবং এক ছেলে ও এক মেয়ে রেখে গেছেন।