Opu Hasnat

আজ ১৯ নভেম্বর মঙ্গলবার ২০১৯,

ভদ্র ব্যবহার করলে কফির দাম রাখা হয় কম অন্যান্য

ভদ্র ব্যবহার করলে কফির দাম রাখা হয় কম

রাগ করে কোনো কিছু করাই ভাল লক্ষণ নয়। তাতে হিতে বিপরীত হয়। তাই রাগ নিয়ন্ত্রণে ভালো কৌশল আবিষ্কার করেছেন কফিশপের এক মালিক। তা হলো- রাগ করে কোনো ক্রেতা কফির অর্ডার দিলে তাকে বেশি দাম দিতে হবে। ব্লাউ গ্রিফিউ নামে স্পেনের এক কফিশপের মালিক মারিসেল ভ্যালেন্সিয়া ক্রেতাদের খারাপ ব্যবহার নিয়ন্ত্রণ করতেই এমন কৌশলের আশ্রয় নিয়েছেন।

যদি কোনো ক্রেতা ভদ্রভাবে কফির অর্ডার দেন তাহলে তাকে কফির মূল্য পরিশোধ করতে হবে ২.৫২ ব্রিটিশ পাউন্ড (২৬১ টাকা)। আর যদি ভদ্রভাবে তা না করেন অর্থাৎ কঠিন বা রূঢ়ভাবে কফি অর্ডার করেন তাহলে তাকে আলাদা ১.৬৮ ব্রিটিশ পাউন্ড (১৭৫ টাকা) বেশি দাম দিতে হবে। 

কফিশপের মালিক মনে করেন, খারাপ ব্যবহারের জরিমানা স্বরূপ তাকে এই টাকা পরিশোধ করতে হবে। শুধু তাই নয়, যদি কোনো ক্রেতা আরো ভদ্রভাবে অর্ডার দেন তাহলে তার কফির দাম আরো কমে যাবে। 

যেমন- কেউ যদি ‘এক্সকিউজ মি’ বা ‘প্লিজ’ বলে কফি অর্ডার দেয় তাহলে তার কফির দাম হবে আরো কম হবে। ১.৩০ ব্রিটিশ পাউন্ড (১৩৫ টাকা)।

কফিশপের মালিক মারিসেল ভ্যালেন্সিয়া মাদ্রিদ বলেন, ‘মানুষের ব্যবহার ক্রমেই খারাপ হয়ে যাচ্ছে। ‘এক্সকিউজ মি’ বা ‘প্লিজ’ শব্দগুলো বলা ভুলেই গেছে। আর আমি এই সিদ্ধান্ত নিয়েছি। এই নিয়ম অনুসারে কফির দামের একটি লিস্ট দেয়ালে টানিয়ে দিয়েছি। তবে আমার বুদ্ধি বা কৌশল বিফলে যায়নি। প্রতিদিন ক্রেতাদের ব্যবহারের উন্নতি হচ্ছে।’

মারিসেল ভ্যালেন্সিয়া মাদ্রিদের কফিশপটি স্পেনে অবস্থিত। তবে তিনি কলম্বিয়ার নাগরিক। স্পেনে অনেকদিন থাকায় সেখানকারও নাগরিকত্ব লাভ করেছেন। তার এলাকার বেশির ভাগ মানুষের ব্যবহার ভালো নয়। প্রায় সময় শপের কর্মচারীদের সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করেন তারা। তাই এ নিয়ম চালু করে তাদের ভদ্র করার চেষ্টা করছেন।